ঢাকা ০৭:১৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল 'যমুনা প্রতিদিন ডট কম' এ সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে।

শীতে বিপর্যস্ত মোংলার কর্মজীবি মানুষ

মাসুদ রানা,মোংলাঃ
  • আপডেট সময় : ০৬:১২:২২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৩ জানুয়ারী ২০২৩ ২৮ বার পড়া হয়েছে
যমুনা প্রতিদিন অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ঘন কুয়াশা আর হিমেল হাওয়াসহ তীব্র শীতে বিপর্যস্ত মোংলা কর্মজীবি মানুষ।সকালের প্রচন্ড শীতে কাজে যেতে পারছে না মানুষ।তারপরেও খেটে খাওয়া নিম্ন আয়ের মানুষগুলো ছুটছে কাজের সন্ধানে।প্রচন্ড শীতে দুভোর্গ পৌহাচ্ছে খেটে খাওয়া ছিন্নমুল মানুষ।

রাত থেকে ঘন কুয়াশায় ঢাকা পড়ে মোংলা উপজেলার সব কটি ইউনিয়নের গ্রামাঞ্চল।এতে তীব্র শীত ও হিমেল হাওয়ায় সবচেয়ে দুভোর্গে পড়েছে খেটে খাওয়া দিনমজুর মানুষগুলো।

মোংলা-পশুর নদী ও সুন্দরবন সংলগ্ন সহ নদীর তীরবর্তী উপকুলীয় এলাকায় সুন্দরবনে মাছ ধরার সাথে জড়িতরা পড়েছে বেশি বিপাকে।

এছাড়া শীতের মধ্যেও বন্দর,শিল্পাঞ্চল ও ইপিজেড’এ কর্মরত শ্রমিকরা শীতের তিব্রতা মাথায় নিয়ে কাজে বের হতে হচ্ছে।বেলা গড়িয়ে সকাল ১০টার পরেও সুর্যের দেখা মিলছেনা।

বাগেরহাট জেলার মোংলা সমুদ্র বন্দর ও উপকুলীয় এলাকায় বৃহস্পতিবার সবনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১১ ডিগ্রি সেলসিয়াস বলে জানিয়েছে মোংলা আবহাওয়া পর্যবেক্ষনাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ হারুন আর রশিদ।

তিনি আরো বলেন,চলতি সপ্তাহে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১০.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

শীতে বিপর্যস্ত মোংলার কর্মজীবি মানুষ

আপডেট সময় : ০৬:১২:২২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৩ জানুয়ারী ২০২৩

ঘন কুয়াশা আর হিমেল হাওয়াসহ তীব্র শীতে বিপর্যস্ত মোংলা কর্মজীবি মানুষ।সকালের প্রচন্ড শীতে কাজে যেতে পারছে না মানুষ।তারপরেও খেটে খাওয়া নিম্ন আয়ের মানুষগুলো ছুটছে কাজের সন্ধানে।প্রচন্ড শীতে দুভোর্গ পৌহাচ্ছে খেটে খাওয়া ছিন্নমুল মানুষ।

রাত থেকে ঘন কুয়াশায় ঢাকা পড়ে মোংলা উপজেলার সব কটি ইউনিয়নের গ্রামাঞ্চল।এতে তীব্র শীত ও হিমেল হাওয়ায় সবচেয়ে দুভোর্গে পড়েছে খেটে খাওয়া দিনমজুর মানুষগুলো।

মোংলা-পশুর নদী ও সুন্দরবন সংলগ্ন সহ নদীর তীরবর্তী উপকুলীয় এলাকায় সুন্দরবনে মাছ ধরার সাথে জড়িতরা পড়েছে বেশি বিপাকে।

এছাড়া শীতের মধ্যেও বন্দর,শিল্পাঞ্চল ও ইপিজেড’এ কর্মরত শ্রমিকরা শীতের তিব্রতা মাথায় নিয়ে কাজে বের হতে হচ্ছে।বেলা গড়িয়ে সকাল ১০টার পরেও সুর্যের দেখা মিলছেনা।

বাগেরহাট জেলার মোংলা সমুদ্র বন্দর ও উপকুলীয় এলাকায় বৃহস্পতিবার সবনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১১ ডিগ্রি সেলসিয়াস বলে জানিয়েছে মোংলা আবহাওয়া পর্যবেক্ষনাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ হারুন আর রশিদ।

তিনি আরো বলেন,চলতি সপ্তাহে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১০.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।