শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০৫:৫৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
এক যুগ পরে নিজের গানে মডেল হলেন ফারদিন রাজশাহীতে বিএনপির গায়েবানা জানাজা অনুষ্ঠিত রাবি ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদকের কক্ষে থেকে মাদক-অস্ত্র উদ্ধার ফরিদপুরের ভাঙ্গায় মুক্তিযোদ্ধাদের বিরুদ্ধে কটুক্তির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ বাঘায় (অনুর্ধ-১৭) প্রথম খেলায় ১-০ গোলে মনিগ্রাম ইউপি,দ্বিতীয় খেলায়-৩-১ গোলে পাকুড়িয়া জয়ী পাইকগাছায় প্রধান শিক্ষক ও সভাপতির বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও ঝাড়ু মিছিল একটি মানবিক আবেদন গলাচিপায় শিশু শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনায় মুগ্ধ হলেন পরিকল্পনা সচিব রাজশাহীতে ফজরের নামাজ পড়ে হাটাহাটির সময় যুবককে হত্যা বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন ফরিদপুর জেলা কমিটির উপদেষ্টা এ কে আজাদ এমপি
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

পাইকগাছায় মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অনিয়ম,দুর্নীতি ও টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

খুলনার পাইকগাছা উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম, দুর্নীতি ও কিশোর-কিশোরী ক্লাবের শিশুদের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

উপজেলার মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আওতাধীন বিভিন্ন ইউনিয়নে ১১ কিশোর কিশোরী ক্লাব।যেখানে সদস্য সংখ্যা ৩০ জন।সপ্তাহে শুক্র ও শনিবার গানসহ বিভিন্ন বিষয়ে শিক্ষা দেয়া হয়।তাদের প্রত্যেকের জন্য বরাদ্দ ৩০ টাকার পুষ্টিকর নাস্তা।

কিন্তু সরেজমিনে দেখা যায়, তাদেরকে এক প্যাকেট ড্রাই কেক যাতে দুটো থাকে ও এক প্যাকেট বিস্কুট যার খুচরা মুল্য ১০ টাকা পাইকারি ৮ টাকা।একটা ক্লাবে সপ্তাহে ১৮ ‘শ টাকার নাস্তা দেয়ার কথা।

এছাড়া কোন কেন্দ্রে উপস্থিত সর্বোচ্চ ২২-থেকে ২৪ জন।সপ্তাহে ১৯ হাজার ৮ ‘শ টাকার নাস্তা দেয়ার কথা কিন্তু সেখানে গড়ে ২০ জনের উপস্থিতি দেখালেও ৮ ‘শ টাকার নাস্তা কেন্দ্রে দেয়া হয়।১১ টি কেন্দ্রে সর্বোচ্চ ৮ হাজার ৮ টাকা নাস্তার জন্য খরজ করে।বাকী ১১ হাজার টাকা সপ্তাহে আত্মসাৎ  করা হচ্ছে।

এদিকে মহিহারী বাবদ গত ডিসেম্বর মাসে প্রতি কেন্দ্রে ৩ হাজার করে ১১ টি কেন্দ্রে ৩৩ হাজার টাকা বাজেট দেয়া হয়েছে।যার একটি টাকাও আজও  কোন কেন্দ্রে দেয়া হয়নি।

তবে জেন্ডার প্রোকটর বজলুর রহমান ও শিক্ষক হিরণম্ময় চক্রবর্তী জানান, সাংবাদিকরা খোঁজ খবর নেয়ার পর স্যার আমাদের হারমনিয়াম ও তবলা যদি নষ্ট হয়ে থাকে ঠিক করে দিতে চেয়েছেন।বিভিন্ন দিবস পালন না করে খাতা কলমে দেখিয়ে অনিয়ম করেছে।গত ২১ ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন না করেও পুরাতন ছেড়া নোংরা বই পুরস্কার  হিসেবে কারো বাড়ীতে পৌছে দেয়া হয়েছে এমনটি জানা গেছে।১৭ মাচ জাতীয় শিশু দিবস  দায়সারা ভাবে দু- একটি কেন্দ্রে ১৬ মার্চ পালন করা হয়েছে।শিক্ষক ও সদস্যরা জানান যেভাবে কর্মকর্তা বলেছেন সেভাবেই পাল করছি।

মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা রেশমা আক্তার সব কিছু অস্বীকার করে শিক্ষকদের উপর দায় চাপিয়ে বলেন আমি সঠিকভাবে দায়িত্ব পালণ করছি।কোন অনিয়ম ও দুর্নীতি আমি করি নাই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 − 10 =


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ

x
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com