শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:৩৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
সারিয়াকান্দিতে থানা পুলিশের অভিযানে মাদক ব্যবসায়ীসহ গ্রেফতার-২ ‘বাংলাদেশ গুড সোল ট্রুপস’ উদ্যোগে দিনব্যাপী রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচি শাহ্ মখদুম কলেজের শিক্ষক জীবন ঘোষের পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন উম্মাহাতুল মু’মিনীন (রা.) বালক বালিকা মাদ্রাসার আলোচনা সভা এবং পুরুষ্কার বিতরণী সম্পন্ন ভাষা শহীদদের স্মরণে রাজশাহী সাংবাদিক সংস্থার শ্রদ্ধাঞ্জলি সারিয়াকান্দিতে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত রাজশাহী এনজিও ফেডারেশন উদ্যোগে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডে মহান শহিদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন রামেবিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন আসছে কেএইচ রিপনের হিন্দি গান ‘কাল নাগিনী’
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

নির্বাচন তফসিল বাতিলের দাবিতে রাবির জিয়া পরিষদের কালো পতাকা মিছিল

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ঘোষিত তফসিল বাতিলের দাবিতে র‌্যালি ও কালো পতাকা মিছিল করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) জিয়া পরিষদ।

বুধবার (২৩ নভেম্বর ২০২৩) বেলা ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সিনেট ভবন সংলগ্ন প্যারিস রোড থেকে র‌্যালিটি শুরু হয়ে শহীদ মিনারে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়।

সমাবেশে জিয়া পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক কুদরত-ই-জাহান এর সঞ্চালনায় বক্তারা বলেন, আওয়ামী সরকার ২০১৪ সালে বিনা ভোটে এবং ২০১৮ সালে আগের রাতে ব্যালট বাক্স ভর্তি করে অবৈধ ও নির্লজ্জভাবে শাসনক্ষমতা জবরদখল করে।বিএনপিসহ বেশিরভাগ বিরোধী দল ও অধিকাংশ জনগণকে ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত করে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার।আজকের নতুন প্রজন্ম তাদের ভোটাধিকারের সুযোগ পাচ্ছে না।দেশে আজ দুর্নীতি, লুটপাট, অর্থপাচার, বিরোধী মত দমন, গুম, খুন স্বাভাবিক ঘটনায় পরিণত হয়েছে।দ্রব্যমূল্যের কারণে সাধারণ মানুষের জীবন অতিষ্ঠ।

নির্বাচন কমিশনের এই তফসিলকে ষড়যন্ত্রমুলক ও একতরফা দাবি করে তাঁরা বলেন, তফসিল অবিলম্বে বাতিল ঘোষণা করে কারাবন্দি বিরোধী দলের নেতৃবৃন্দকে অবিলম্বে মুক্তি দেয়ার দাবি জানান তাঁরা।এছাড়া নির্দলীয় সরকারের অধীনে অবাধ, সুষ্ঠ, গ্রহণযোগ্য ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের আহ্বানও জানান তাঁরা।

সমাবেশে জিয়া পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক এনামুল হক বলেন, ২০১৪ ও ২০১৮ এর মতো নির্বাচন আর হতে দেওয়া যাবে না।আমরা নিশ্চিত এই সরকারের অধীনে যদি আবারও নির্বাচন হয় তাহলে কাশ্মীর ও ফিলিস্তিনের জনগণের মতো নির্যাতন এদেশের জনগণকেও সহ্য করতে হবে।বর্তমানে বিএনপির সাধারণ মানুষ ও শিক্ষকগন রাতে ঘুমাতে পারেন না।সেক্ষেত্রে নির্বাচন কমিশন কীভাবে তপশিল ঘোষণা করে? অবিলম্বে এই তপশিল বাতিল করতে হবে এবং নির্দলীয় সরকারের অধীনে একটি নির্বাচন দিতে হবে।

এসময় সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন, অধ্যাপক মো. রেজাউল করিম-২, অধ্যাপক মো. গোলাম ছাদিক, অধ্যাপক ইফতিখারুল আলম মাসুদ, অধ্যাপক কাজী মোস্তাফিজুর রহমান, অধ্যাপক মো. আমিনুল হক, অধ্যাপক মো. আব্দুল আলিম, অধ্যাপক মো. আলতাফ হোসেন-১, অধ্যাপক মো. আমিরুল ইসলাম, অধ্যাপক মো. খালেকুজ্জামান, অধ্যাপক এ বি এম হামিদুল হক, অধ্যাপক মো. আওরঙ্গজীব আব্দুর রহমান, অধ্যাপক মো. নুরুল আলম, অধ্যাপক মো. সাইফুল ইসলাম, অধ্যাপক মো. দেলোয়ার হোসেনসহ শতাধিক শিক্ষক কর্মকর্তাও কর্মচারী।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ