শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৫৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা জানালেন প্রধানমন্ত্রী রমজানে স্বপ্নবাজ‘র উদ্যোগে দোয়া মুখস্থ ও জ্ঞানার্জন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ লন্ডনে প্রবাসীদের সাথে ঈদ উদযাপন প্রতিমন্ত্রী দারার যদুনাথ রি-ইউনিয়ন ক্রিকেট টুর্নামেন্ট-২৪ সিজন-৪ অনুষ্ঠিত রাজশাহীর বাঘায় চলছে প্রকাশ্যে হাতি দিয়ে চাঁদাবাজি সারিয়াকান্দিতে আগুনে পুড়ে ছাই কৃষকের গোয়ালঘর ও গবাদি পশু : ৪ লক্ষ টাকার ক্ষতি সারিয়াকান্দিতে আগুনে পুড়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী লিখন মিয়া আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসে জনগণকে দিতে,আর বিএনপি আসে নিতে : প্রধানমন্ত্রী সচ্ছল ব্যক্তিদেরকে দরিদ্র জনগোষ্ঠীর পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান রাষ্ট্রপতির ঈদের দিনে উপচে পড়া ভিড় সারিয়াকান্দির পর্যটনকেন্দ্রগুলোতে
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

খুলনার উপকূলীয় এলাকা পরিদর্শন করলেন সুইডেনের রাজকন্যা ভিক্টোরিয়া

খুলনার কয়রার অজপাড়া গাঁয়ের নারীরা সুপেয় পানির সমস্যার কথা সুইডেনের রাজকন্যা ক্রাউন ভিক্টেরিয়াকে জানালেন মহেশ্বরীপুর নয়ানী নামযজ্ঞ পানি ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যরা।

ঐ কমিটির সদস্য লিপিকা বিশ্বাস (২৯) রাজকন্যাকে জানালেন, খাবার পানির সংকটের কথা।তিনি রাজকন্যার উদ্দেশ্যে লবনাক্ত পানির ক্ষতিকর দিকগুলো তুলে ধরেন।

এবং লজিক প্রকল্প এলাকায় ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট তৈরি করায় এলাকার মানুষ যে মহাখুশি তা তারা রাজকন্যাকে জানান।তারা বেশি করে এলাকার সুপেয় পানির ব্যবস্থার পাশাপাশি আরও ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট স্থাপনের দাবি জানান।

মঙ্গলবার সকাল ৮ টায় সুইডেনের প্রিন্সেস ক্রাউন ভিক্টোরিয়া জাতিসংঘের উন্নয়ন কর্মসূচি (ইউএনডিপি)র’ শুভেচ্ছা দূত হিসাবে খুলনার কয়রা উপজেলার গাীলাবাড়ি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠে নির্মিত হেলিপ্যাডে সফরসঙ্গীসহ বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর ২ টি হেলিকপ্টারে অবতরণ করেন।

পরে তিনি উপকূলীয় অঞ্চলে জলবায়ু পরিস্থিতি মোকাবেলায় স্থানীয় লোকজনের জীবনমান নিজ চোখে দেখার জন্য মহেশ্বরীপুর ইউনিয়নের নয়ানী নামযজ্ঞ মাঠে হাজির হন।

সেখানে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়নধীন ও ইউএনডিপির সহযোগিতায় লজিক প্রকল্পের নির্মিত ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট পরিদর্শন করেন এবং সিআরএফ গ্রুপের জীবিকাায়নে ভেড়া পালন, মৎস্য চাষ ও সবজির চাষ পর্যবেক্ষণ করেন এবং পানি কমিটির সদস্যদের সাথে কথা বলেন।

এরপর রাজকন্যা ১০ টা ২৫ মিনিটে মহারাজপুর ইউনিয়ন পরিষদ এসে পৌঁঁছান, ডিজিটালাইজেশনে রূপান্তর কার্যক্রম পরিদর্শন করেন।

এ সময় তিনি ইউনিয়ন পরিষদের ডিজিটাল সেন্টারে বয়স্ক, বিধবা ভাতা, ই-পাসর্পোট কার্যক্রম দেখেন।পরে মধুমতি ব্যাংকে একাউন্টের মাধ্যমে রেশমা আক্তারকে দিয়ে ৫শ টাকার ডিপোজিট কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।

পরে সেখান থেকে তিনি সড়ক পথে সাড়ে ১১ টায় কয়রা সদরে স্মার্ট সার্ভিস পয়েন্ট অব পোস্ট অফিসের কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।তিনি এ সকল কার্যক্রমের পাশাপাশি ঝুঁকিপূর্ণ মানুষের অনুভূতির কথা শুনেছেন ও জীবন জীবিকা কার্যক্রম অবলোকন করেছেন।তিনি পৌনে বারোটায় কয়রা ত্যাগ করেন।

এ সময় রাজকন্যার সফরসঙ্গী হিসাবে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু মন্ত্রী সাবের হোসেন চৌধুরী, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, জাতি সংঘের সহকারী মহাসচিব উলরিকা মোদের, আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সহযোগিতা ও বৈদেশিক বাণিজ্য সুইডিশ মন্ত্রী জোহান ফরসেল, কয়রা-পাইকগাছার সংসদ সদস্য মোঃ রশীদুজ্জামান সহ সরকারি কর্মকর্তা, জাতি সংঘের প্রতিনিধি ও বে-সরকারি খাতের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eleven − seven =


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ

x