বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০১:২৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বাগমারাবাসীর সেবা করে যেতে চাই-এমপি আবুল কালাম আজাদ প্রচন্ড দাবদাহে পথচারী ও শ্রমজীবীদের মধ্যে হাতীবান্ধায় শরবত বিতরণ কমলাপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ছালাম মৃধার উঠান বৈঠকে জনতার ঢল নিজেই এখন গরম ও লোডশেডিং চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির দুঃখ প্রকাশ,দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার অঙ্গীকার আশুলিয়ায় জাতীয় শ্রমিক লীগের মে দিবসের প্রস্তুতি সভা মাদক অপরাধ করতে উৎসাহিত করে : রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার হুমায়ুন কবীর আদালতের নির্দেশে বগুড়ার নন্দীগ্রাম থেকে উদ্ধার হওয়া মূর্তি মহাস্থান জাদুঘরে হস্তান্তর লিগ্যাল এইড’র পক্ষ থেকে রাসিক মেয়রকে সম্মাননা স্মারক প্রদান
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

ফরিদপুরে জমি দখলের চেষ্টার অভিযোগে সাংবাদিক সম্মেলন

ফরিদপুর সদর উপজেলার পৌরসভার ২২ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোঃ নজরুল ইসলাম মৃধা পিতা মৃত হাবিবুর রহমান মৃধা, ফরিদপুর পৌর সভার কমলাপুর আমার স্থায়ী বসবাস, থানা কোতয়ালী, জেলা ফরিদপুর তিনি মঙ্গলবার বেলা ১১টায় ফরিদপুর প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করেন ফরিদপুর পৌরসভার ২২ নং ওয়ার্ডের আমি নির্বাচিত কাউন্সিলর ও ফরিদপুর পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক, আমি এর আগেও ফরিদপুর পৌরসভার কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছিলাম, আমি সুনামের সহিত আমার দায়িত্ব পালন, সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসিতেছি।আমাকে সামাজিক ও রাজনৈতিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য আমার বিরুদ্ধে কিছু পত্রিকায় ও ফেসবুকের মাধ্যমে মিথ্যা সংবাদ প্রচার করায় আমি তার তীব্র প্রতিবাদ করছি।আমার নামে যে সকল অভিযোগ আনা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন।

কাউন্সিলর মোঃ নজরুল ইসলাম জানান আমি ফরিদপুর জেলার কোতয়ালী থানাধীন ১১৬ নং কমলাপুর মৌজার এস ,এ ১৯৮০ এবং খতিয়ান মোতাবেক বিএস ১২৯৫ নং খতিয়ানভুক্ত বি এস ৮৬ ১৭ নং দাগের ১৩. ৩৭ শতাংশ জমি রেজিস্ট্রিকৃত দলিল মূলে ক্রয় সূত্রে আম মুক্তার দলিল মূলে মালিকানা প্রাপ্ত হইয়া উহার উপর ঘরবাড়ি দোকান নির্মাণ করিয়া শান্তিপূর্ণভাবে প্রায় ১২ বছর যাবত ভোগ দখল করিয়া আসিতেছি।

কিন্তু উক্ত দাগের ষোল আনায় ৪৩,৩৭ শতাংশ জমির মধ্যে আমার নিজাংশে ক্রয় কৃত ৩ পয়েন্ট ৩৭ শতাংশ ও আম-মোক্তার দলিল মূলে প্রাপ্ত ১০ শতাংশ সর্বমোট ১৩ পয়েন্ট ৩৭ শতাংশ জমি দাগের পূর্ব তরফ হইতে সকলের জ্ঞাতসারে প্রায় ১২ বছর যাবত বসতবাড়ি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নির্মাণপূর্বক বিদ্যুৎ বিল পৌর ট্যাক্স পরিষদ পূর্বক শান্তিপূর্ণভাবে ভোগ দখলে আছি।

এমতাবস্থায় গত ইংরেজি ১৭/ ৩ /২০২৪ ইং তারিখে আনুমানিক সকাল ৯ঃ২০ ঘটিকার সময় ১২০ বা ১৩০ জন বহিরাগত সন্ত্রাসীরা আমার বসতবাড়ি জমি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আসিয়া ভাঙচুর দখল করার চেষ্টা করে এবং আমার বাড়ির ভাড়াটিয়া ভাঙচুরের কারণ জানতে চাইলে তাহাকে ও লোহার শাবল দিয়া এলোপাথারী ভাবে মারপিট করতে থাকে, তাহার চিৎকারে এলাকার লোকজনসহ আমার ছোট ভাই মোঃ আজিজুল ইসলাম মৃধা আগাইয়া আসিলে তাহাকেও লোহার শাবল দিয়া এলোপাথাড়ি ভাবে মারপিট করতে থাকে তখন আমার ছোট ভাই আমাকে মোবাইল ফোনে বিষয়টি জানায় আমার বসতবাড়িও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে সন্ত্রাসীরা ভাঙচুর হামলা ও আমাদেরকে মারপিট করছে, আমি তখন কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মহোদয় কে বিষয়টি মোবাইলে জানাই ও দ্রুত ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠাতে বলি।ওসি মহোদয় ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠায় ইতিমধ্যে আমিও ঘটনাস্থলে পৌঁছাই। তখন এলাকাবাসীর হাত হইতে মিঠুন খান ও হাবিব খান এবং অজ্ঞাতনামা একজন মোট ৩ জন সন্ত্রাসীকে উদ্ধার করে পুলিশে সোর্পদ করি।পরবর্তীতে কোতোয়ালি থানায় হাজির হইয়া ঘটনাবলী কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোঃ হাসানুজ্জামানকে বলি এবং আমার দলিলপত্র অমান্য হাইকোর্টের আদেশের ফটোকপি প্রদান করিলে ওসি সাহেব কাগজপত্র দেখে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলিয়া জানান।

কাউন্সিলর মোঃ নজরুল ইসলাম মৃধা আরো ও জানান প্রিয় সাংবাদিক ভাইয়েরা আমি ন্যায় বিচারের স্বার্থে মহামান্য সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের ৭১৮৩ / ২৩ নং সিভিল রিভিসন মোকদ্দমা করা হয় কোর্ট কর্তৃক নালিশি মৌজার বিএস ১২৯৫ নং খতিয়ানভুক্ত ৮৬৭ নং দাগের জমিতে স্বার্থে সম্বলিত ব্যক্তিদের কে ৬ (ছয়) মাসের স্থিতিবস্হা বজায় রাখার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন।

তিনি আরো বলেন, আমাদের দলিল কৃত সম্পত্তি যাহা আমাদের নামে নামজারী করে হালসন পর্যন্ত খাজনা প্রদান করা পৌর হোল্ডিং ট্যাক্স পরিশোধ করা বিদ্যুৎ মিটার আমাদের নামে থাকা সত্ত্বেও বহিরাগত সন্ত্রাসী দ্বারা অবৈধভাবে দখলের চেষ্টা করেন আপনারা সাংবাদিক কলমের মাধ্যমে দেশের নির্যাতিত মানুষের পাশে থেকে তাদের সঠিক বিচার পাওয়ার সহযোগিতা করে থাকেন সেই জন্য আমার আকুল আবেদন আপনাদের সঠিক তথ্য ও লেখনির মাধ্যমে আমি যাতে ন্যায় বিচার পাই।

এ সময় কাউন্সিলর মোঃ নজরুল ইসলাম মৃধার ছোট ভাই হামলার শিকার মোঃ আজিজুল মৃধা অভিযোগ করে বলেন আমাদের ক্রয় ক্রৃত জমি আমরা ১২/১৩ বছর যাবত বাড়ি ও দোকানপাট করে সুন্দর ভাবে বসোবাস করছি অন্যায় ও ষড়যন্ত্রমূলক জবরদখল করতে চেয়েছিল এলাকার কিছু সন্ত্রাসী বাহিনী, কিন্তু এলাকাবাসীর কারণে অন্যায় ভাবে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে জবরদখল করতে পারেনি।

এ সময় ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ মানোয়ার হোসেন, তিনিও এ ব্যাপারে দুঃখের সহিত বলেন খুবই দুঃখজনক এধরনের ঘটনা মোটেও কাম্য নয়।এ সময় সকল ইলেকট্রিক মিডিয়া ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 − one =


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ

x