সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ১০:২৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
টাঙ্গাইলের মধুপুরে টিওটি প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত রাজশাহী রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ মিন্টু রহমান অতিরিক্ত সচিব পদে পদন্নোতি পেলেন কিশোরগঞ্জের সন্তান আব্দুর রউফ প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহের শেষ দিনে কাজিপুরে সচেতনামূলক কর্মশালা ও পুরস্কার বিতরণী সুন্দরগঞ্জে গ্রাম পুলিশদের অবহিতকরণ প্রশিক্ষণ শুরু পঞ্চগড়ে জেলা প্রশাসকের গাড়ি ভাঙচুর, যুবক আটক বীর মুক্তিযোদ্ধা আলী হোসেনের মৃত্যুতে রাসিক মেয়রের শোক রাসিক‘কে সুদৃঢ় আর্থিক ভিত্তির উপর দাঁড় করতে চাই : মেয়র লিটন বাগেরহাট বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়  নির্বাচিত হচ্ছেন তিন প্রার্থী  তথ্য ও প্রযুক্তির মাধ্যমে ৯টি হারানো ফোন উদ্ধার করে মালিকদের ফিরিয়ে দিল সরিষাবাড়ী থানা পুলিশ
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

ফুলবাড়ীতে প্রতারণার শিকার জেলেদের বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির প্রতারণায় হয়রানীর শিকার হচ্ছে সাধারণ মৎস্যজীবিরা।এর প্রতিবাদে ১৭ মার্চ রবিবার দুপুর ১২ টায় বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে উপজেলার সদর ইউনিয়নের দক্ষিণ কুটিচন্দ্রখানা গ্রামের ভুক্তভোগী সাধারণ জেলেরা।

বিক্ষোভ মিছিলটি উপজেলা সদরের প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে উপজেলা গেটে মানববন্ধন করে।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ক্ষিরোদ চন্দ্র বিশ্বাস, নিয়াশা বিশ্বাস, সন্তোষ চন্দ্র, কামাক্ষা চন্দ্র প্রমূখ।

বক্তারা অভিযোগ করেন, বিবাদীরা ফুলবাড়ী মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির নামে ফুলসাগর লেকটি ইজারা নেয়।এজন্য তারা ২৬ জন সাধারণ জেলেকে সদস্য হিসেবে তালিকাভূক্ত করে কিন্তু এ বিষয়ে আমরা কিছুই জানতাম না।ইজারার টাকা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পরিশোধ না করায় ২ মার্চ, ২০২৪ তারিখে কুড়িগ্রামের জেলা প্রশাসক ২৬ জন সদস্যের নামে ইজারার টাকা পরিশোধের নোটিশ জারি করে।প্রত্যেক সদস্যকে ১ লক্ষ ৮৭ হাজার টাকা করে দিতে হবেআমরা গরীর জেলে, ইজারার সুবিধাও পাইনি।আমাদের পক্ষে এ টাকা দেওয়া সম্ভব নয়। আমরা এ ঘটনার বিচার চাই।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী জেলেরা ১৪ মার্চ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগ দায়ের করে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ফুলবাড়ী মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির নামে সংগঠনটির সভাপতি দক্ষিণ কুটিচন্দ্রখানা গ্রামের ধরনী বিশ্বাস ও সাধারণ সম্পাদক কবিরমামুদ গ্রামের মফিদুল হক ১৪২৯ বাংলা সন মেয়াদে ফুলসাগর লেকটি ইজারা নেন।এজন্য তারা ২৬ জন জেলেকে সদস্য অন্তর্ভূক্ত করে।বিষয়টি জানতেন না ওই সদস্যরা।ইজারার টাকা জমা দেয়ার সময় পার হয়ে গেলে কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ইজারার ৪৮ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা পরিশোধ করার জন্য ২৬ জন সদস্যের নামে সার্টিফিকেট মামলা দায়ের করে নোটিশ প্রদান করে।নোটিশে ৩০ দিনের মধ্যে টাকা জমা দেয়ার জন্য বলা হয়।নোটিশ পাওয়ার পর দিশেহারা হয়ে পড়ে সাধারন জেলেরা।স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের মাধ্যমে সভাপতি ও সম্পাদকের সাথে বিষয়টি মিমাংসার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও জেলা প্রশাসকের কাছে অভিযোগ জমা দিয়েছে ভূক্তভোগী জেলেরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

sixteen − 8 =


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ

x