বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:২২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বাগমারাবাসীর সেবা করে যেতে চাই-এমপি আবুল কালাম আজাদ প্রচন্ড দাবদাহে পথচারী ও শ্রমজীবীদের মধ্যে হাতীবান্ধায় শরবত বিতরণ কমলাপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ছালাম মৃধার উঠান বৈঠকে জনতার ঢল নিজেই এখন গরম ও লোডশেডিং চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির দুঃখ প্রকাশ,দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার অঙ্গীকার আশুলিয়ায় জাতীয় শ্রমিক লীগের মে দিবসের প্রস্তুতি সভা মাদক অপরাধ করতে উৎসাহিত করে : রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার হুমায়ুন কবীর আদালতের নির্দেশে বগুড়ার নন্দীগ্রাম থেকে উদ্ধার হওয়া মূর্তি মহাস্থান জাদুঘরে হস্তান্তর লিগ্যাল এইড’র পক্ষ থেকে রাসিক মেয়রকে সম্মাননা স্মারক প্রদান
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

একুশে ফেব্রুয়ারির প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের স্মরণ করলো রাজশাহী বরেন্দ্র প্রেসক্লাব

আজ ২১শে ফেব্রুয়ারি মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস।বাঙালি জাতির ইতিহাসে এক ঐতিহাসিক দিন।

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে রাজশাহী বরেন্দ্র প্রেস ক্লাবের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়েছে।

অমর একুশে ফেব্রুয়ারির প্রথম প্রহর রাত ১২টা ১ মিনিটে রাজশাহীর ভুবন মোহন পার্ক শহীদ মিনারে ভাষার জন্য প্রাণ উৎসর্গকারী শহীদদের স্মরণে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও এক মিনিট নিরবতা পালন করেন রাজশাহী বরেন্দ্র প্রেস ক্লাবের নেতৃবৃন্দ।

পুষ্পস্তবক অর্পণকালে উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী বরেন্দ্র প্রেসক্লাবের সভাপতি শামসুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম, দপ্তর সম্পাদক নিহাল খান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আরবিএস পাভেল, নির্বাহী সদস্য-১ পাপন, নির্বাহী সদস্য-২ শফিকুল ইসলাম ইমন, সদস্য নাজমুল হক, স্বাধীন, মাসুদ পারভেজ, সাবিত হাসান রনি, আদিল, মানিক, আবু বক্কর সিদ্দিক, তানজিলুল ইসলাম লাইক।এছাড়াও আরও উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী বরেন্দ্র প্রেসক্লাবের প্রেসিডিয়াম মেম্বার শাহিনুর রহমান সোনা, আলামিন হোসেন।

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, দৈনিক মানবিক বাংলাদেশের প্রতিনিধি আতিকুর রহমান, ভোরের আভা’র স্টাফ রিপোর্টার রোকাইয়া, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সফল উদ্যোক্তা শাকিল, রনি, মোহন, ফারুক, শিশু জিনাত প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ২১ শে ফেব্রুয়ারি বাংলার ইতিহাসে একটি অমলিন দিন।ভাষার জন্য প্রাণ উৎসর্গকারী শহীদদের স্মরণে এই দিনটি শহীদ দিবস এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে পালিত হয়।১৯৫২ সালের এই দিনে মাতৃভাষা বাংলার দাবিতে অনেক তরুণরা আন্দোলন চালায়।ঠিক সেই সময় তাদের মিছিলে বর্বর হত্যাকাণ্ড চালানো হয়।কিন্তু সর্বশেষ পাকিস্তান সরকার বাংলাদেশের রাষ্ট্রভাষাকে বাংলা করতে বাধ্য হয়।সর্বশেষ মহান এই দিবসটিকে ইউনেস্কো কর্তৃক আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি প্রদান করা হয়।প্রতিবছর একুশে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে বাংলাদেশ সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পালন করা হয়ে থাকে।এটিকে শহীদ দিবস নামেও পালন করা হয়ে থাকে।ভাষা শহীদদের স্মরণে এবং তাদের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য প্রতিবছর একুশে ফেব্রুয়ারি বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পালন করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 + nineteen =


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ

x