বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:৩৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
প্রবীণ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ শরীফের মৃত্যুতে রাজশাহী জাসদের শোক সারিয়াকান্দিতে পুলিশের অভিযানে মাদক ব্যবসায়ীসহ গ্রেফতার-২ সারিয়াকান্দি উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত রামেবির সিন্ডিকেট সদস্য হলেন এমপি আব্দুল ওয়াদুদ দারা ও ওমর ফারুক সাবু স্মৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত ডাক বাংলা প্রকাশনী’র ৩য় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত বিদেশে নেয়ার নাম করে অর্থ আত্মসাৎ,থানায় অভিযোগ বিরামপুরের ৪নং দিওড় ইউনিয়নে ভিডব্লিউবির চাল বিতরণ বিএমএসএফ’র সাংগঠনিক কর্মপরিকল্পনা ঘোষণা সিরাজগঞ্জে বিএসটিআইয়ের অভিযানে মান সনদ না থাকায় ইটভাটা ও রেস্টুরেন্টকে জরিমানা
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

ভাস্কর শিল্পী সুমন কে উপহার দিলেন চিত্রশিল্পী মিলন বিশ্বাস

আমাদের প্রাকৃতিক পরিবেশ রূপ বৈচিত্র অপরূপ সুন্দর আর এই পরিবেশের উপরে যারা বসবাস করে তারা তাদের চিন্তা-ভাবনা থেকে পরিবেশটাকে আরো সুন্দর করে সাজিয়ে তুলতে সহযোগিতা করে শিল্পীরা।

৩০শে নভেম্বর দুপুরে খুলনা বিভাগে অবস্থিত ইকবাল নগর ৩৬, আয়েশা কটেজ এ পরিচালিত হয় খুলনা আর্ট একাডেমি।এখানে শিল্প সাংস্কৃতিক বিষয় প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।তাই আমাদের সমাজে যারা শিল্প-সাংস্কৃতিক সাধনা করে তারা মাঝেমধ্যে খুলনা আর্ট একাডেমিতে আসেন।তাদের আগমনে চিত্রশিল্পী মিলন বিশ্বাস অনেক আনন্দিত হন।

মিলন বিশ্বাস বলেন, তেমনি একজন গুণী ভাস্কর শিল্পী সুমন সরদার এসেছেন।করোনা মহামারী থেকে সামাজিক যোগাযোগ ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচয় হয় শিল্পী সুমন সরদারের সাথে।

তিনি খুলনা দাকোপ থানার কৈলাশগঞ্জ গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।তার বাবা কৃষি কাজ করে বুড়ির ডাবর বাজারে একটি চায়ের দোকান আছে।মাঝে মাঝে সুন্দরবনে মধু কাটা এবং মাছ কাকড়া ওধরে এক কথায় সাধারন পরিবার থেকে উঠে এসেছে ভাস্কর সুমন সরদার।

ছোটবেলা থেকে শিল্পচর্চার প্রতি তার একটু দুর্বলতা কাজ করতো।সেখান থেকে মাসীর ছেলের সঙ্গে শিল্প জগতে প্রথম পথচলা।যখন সময় পেতো মাঝেমধ্যে তাদের সঙ্গে বিভিন্ন সময় প্র্যাকটিস করার জন্য যেত।তারপরে একজন গুরুর সান্নিধ্যে কিছুদিন ছিলেন।কিন্তু সেখানে গিয়ে শিল্পচর্চার যে স্বপ্নটুকু নিয়ে বড় হয়েছে সেখানে গিয়ে নানান মানসিক চাপ বেড়ে যায়।সে কারণে মা বাবার আশীর্বাদ নিয়ে একা একা সিদ্ধান্ত নিলো সৃষ্টিকর্তার কে স্মরণ করে সে মাটির কাজে দক্ষ হয়ে ওঠেন নিজের চেষ্টায়।সেখান থেকে ৭ বছর একা একা কাজ করে।সবার আর্শীবাদে এখন সে যে কোন প্রতিমা মাটি এবং পাথরের তৈরি করতে পারে।

জন্মস্থান খুলনা দাকোপের শিল্পী হলেও বেশিরভাগ সময় কাজ করে বরিশাল বিভাগে।সকলের আশীর্বাদ নিয়ে শিল্প সাধনায় সফল হতে চায় সুমন।আমার দেখা মতে সে অত্যন্ত শ্রদ্ধা ভক্তি শীল একজন শিল্পানুরাগী।ডাক্তার দেখাতে এসে ছুটে এসেছে আমার সাথে দেখা করার জন্য।এমতাবস্থায় তার হাতে তুলে দেওয়ার মত আমার কাছে কিছুই নেই।তাই আমার ব্যবহারিত দুটি পেন্সিল রাবার তুলে দিলাম শিল্পচর্চা করার জন্য।

আমি মনে করি একজন শিল্পী বা কবি সাহিত্যিক অনেক টাকা পয়সার ব্যক্তি হয় না কিন্তু তাদের চিন্তা ভাবনা মন মানসিকতা এতটাই স্থায়ী হয় মৃত্যুর পরেও তাদেরকে মারা যায় না।মানুষের কাছে চিরস্থায়ী একজন ব্যক্তি হয়ে বেঁচে থাকে।তাই আমি বলব এই ক্ষণস্থায়ী জীবনে দীর্ঘস্থায়ী সময় বেঁচে থাকার জন্য শিল্প সাধনাই হল আমার কাছে শ্রেষ্ঠ।যারা শিল্প সাধনা করে বা পছন্দ করে তাদের সকলের মঙ্গল কামনা করেন চিত্রশিল্পী মিলন বিশ্বাস।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ