বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:৩৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

রাজশাহীর বাঘায় যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা দিবস পালন

রাজশাহীর বাঘা সকালে সূর্য দ্বয়ের সাথে-সাথে দিনের প্রথম প্রহরে উপজেলা বটমুল চত্বরের পাশে ৩১ বার তপথ ধনির মাধ্যমে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও বঙ্গবন্ধুর মুরালে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা অর্পন করা হয়।

এরপর সকাল ৮ টায় বাঘা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আনুষ্ঠানিক ভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন বাঘা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও রাজশাহী জেলা আ’লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক এ্যাড: লায়েব উদ্দিন লাভলু। এ সময় তাঁর পাশে ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: তরিকুল ইসলাম ও বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি)আমিনুল ইসলাম। পতাকা উত্তোলন শেষে স্বাধীনতা দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও নির্বাহী অফিসার ।

আজ ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস। বাঙালি জাতির সবচেয়ে গৌরবের দিন, পরাধীনতার শৃঙ্খল ভেঙে মাথা উঁচু করে দাঁড়ানোর দিন। দীর্ঘ পরাধীনতার শৃঙ্খল ভেঙে ১৯৭১ সালের এই দিনে বিশ্বের মাঝে স্বাধীন রাষ্ট্র গঠনের লক্ষ্যে স্বাধীনতার ডাক দিয়ে ছিলেন স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। এমনটি বক্তব্য উপস্থাপন করে দেশব্যাপী কর্মসুচীর অংশ হিসাবে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে মঙ্গলবার মহান স্বাধীনতা দিবস উৎযাপন করেছে বাঘা উপজেলা প্রশাসন।

তাঁরা বলেন, একাত্তরে অর্জিত স্বাধীনতার জন্য আন্দোলন-সংগ্রামের গোড়াপত্তন হয়েছিল বাহান্নর ভাষা আন্দোলনে। স্বাধীনতা সংগ্রাম ও সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের নেতা ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান । তিনি এই দেশকে হানাদার মুক্ত করতে স্বাধীনতার ডাক দিয়ে ছিলেন বলেই আজকে আমরা স্বাধীন দেশের নাগরিক। বক্তারা শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আমাদের ইতিহাস মনে রাখতে হবে। স্বাধীনতা কারো অর্থ দিয়ে কেনা নয়, দীর্ঘ সংগ্রাম এবং লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে স্বাধীনতা। তাঁরা আজকের দিনের তাৎপর্য তুলে ধরে বলেন, বঙ্গবন্ধু এই দেশকে সোনার বাংলা গড়তে চেয়ে ছিলেন। তিনি কতিপয় ঘাতকের কারণে আজ আমাদের মাঝে নেই। তবে তাঁর সু-যোগ্য কন্যা পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়নে নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। আমরা ইতোমধ্যে মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত হয়েছি এবং ২০৪১ সাল নাগাদ এই দেশকে উ আয়ের দেশে পরিনত করা-সহ স্মাট বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন দেখছি।

এদিকে পতাকা উত্তোলন শেষে দেশ স্বাধীন হওয়ার আনান্দে রঙিন বেলুন উড়িয়ে দেন অতিথি বৃন্দ। এরপর বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, স্কাউট দল,পুলিশ প্রশাসন ও আনছার বাহিনী কুচকাওয়াজ প্রদর্শন করে। অত:পর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জাতীর শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তি যোদ্ধাদের ফুল দিয়ে সংবর্ধিত করা হয় ।

পৃথক-পৃথক এসব কর্মসুচীতে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা সহকারি কমিশনার ভুমি মোহা: জুয়েল আহাম্মেদ , বাঘা উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল, বাঘা পৌর মেয়র আক্কাস আলী, আড়ানী পৌর মেয়র মুক্তার আলী, উপজেলা আ’লীগের সাবেক যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ নছিম উদ্দিন ও সিরাজুল ইসলাম মন্টু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল মোকাদ্দেস, নারী ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেমা মাসুদ লতা,উপজেলা প্রশাসনের সকল অফিসারবৃন্দ এবং বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ-সহ শিক্ষক মন্ডলী ও সুধীজন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five + 12 =


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ

x