বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৭:১০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বাঘায় দশটি ওয়ান শুটারগানসহ অস্ত্র ব্যবসায়ী আব্দুর রশিদ গ্রেপ্তার বাঘায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সংঘাত ও সহিংসতা পরিহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন মনিগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের ২০২৪-২০২৫ অর্থ বছরের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা সারিয়াকান্দিতে কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ সারিয়াকান্দিতে দুর্নীতি বিরোধী বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত চারঘাটে বিএসটিআই’র অভিযানে বেকারিকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা পানি ও বিদ্যুৎ সংকটে রাজশাহীতে মৎস্যচাষীরা আরএমপি’র সহকারী প্রশাসন জুলমাত হাবিবের বিরুদ্ধে অনিয়ম-দূর্নীতি’র অভিযোগ সকল প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে খুলনায় বায়োজিন এলো আন্তর্জাতিক মানের স্কিনকেয়ার সেবা নিয়ে বিএমডিএ : মিথ্যা তথ্যে পিডি নিয়োগ,৮ কোটি টাকার কাজ ভাগ-বাটোয়ারার আয়োজন
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

২ দিন ব্যাপী কর্মী দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণের সমাপনী

২৯ জানুয়ারি (রবিবার) বিকাল ৫:০০ টায় লিডার্স এর প্রধান কার্যালয়ে কর্মীদের দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

দাতা সংস্থা অক্সফাম এর আর্থিক সহযোগিতায়, বিন্দু নারী উন্নয়ন সংগঠন এর সহযোগিতায় লিডার্স ইমপাওয়ারিং উইমেন থ্রু সিভিল সোসাইটি এ্যাক্টরস ইন বাংলাদেশ প্রকল্পটি শ্যামনগর উপজেলায় মুন্সিগঞ্জ, বুড়িগোয়ালিনী ও আটুলিয়া ইউনিয়নে বাস্তবায়ন করছে।

গত ২৮ জানুয়ারি শুরু হওয়া এই প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণকারী হিসাবে অংশ নেন ঐ প্রকল্পের সকল কর্মীবৃন্দ।২ দিন ব্যাপী প্রশিক্ষণে কর্মীদের দক্ষতা উন্নয়নের জন্য প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

উক্ত সমাপনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে প্রশিক্ষণের সমাপনী বক্তব্য দেন লিডার্স এর নির্বাহী পরিচালক মোহন কুমার মন্ডল।

আরও উপস্থিত ছিলেন এসএলএসসিসিভিপি প্রকল্পের প্রকল্প সমন্বয়কারী জি.এম. মোশারাফ হোসেন, সাংবাদিক মোঃ বিল্লাল হোসেন, প্রোগ্রাম অফিসার মোঃ শফিক কামাল প্রমূখ।

এই প্রকল্পের মূল কাজ হলো চিংড়ি সেক্টরের নারী কর্মীদের সম্মানজনক কাজের অধিকার প্রতিষ্ঠা করা। প্রকল্পটি নারী চিংড়ি কর্মীদের ক্ষমতায়ন করবে যাতে তারা একটি জোট গড়ে তুলতে সক্ষম হবে। যাতে তারা পুরুষ শ্রমিকদের মতো কাজের পরিবেশ এবং সমান মজুরি বাড়াতে পারে। প্রথম ধাপে, তিনটি ইউনিয়নের তিনটি নারী চিংড়ি শ্রমিক দল গঠন করা হবে যেখানে সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ নারী চিংড়ি শ্রমিক রয়েছে। অবশেষে নারী চিংড়ি শ্রমিক গোষ্ঠীর প্রতিনিধি নিয়ে একটি নারী চিংড়ি শ্রমিক জোট গড়ে তোলা হবে।

এই প্রকল্পে নারী শ্রমিকগণ শ্রম আইনে নারীদের অধিকার সম্পর্কে জানতে পারবে এবং তারা তাদের অধিকার আদায়ে বলিষ্ট ভূমিকা রাখবে। স্থানীয় সরকার, নাগরিক সমাজ এবং চিংড়ি খামার মালিকদের সাথে সমন্বয় করে মহিলা চিংড়ি শ্রমিকদের জন্য একটি উপযুক্ত কাজের পরিবেশ তৈরি করবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 + twenty =


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ

x