শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৯:৪২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রাজশাহী মহানগরীর সিটি সেন্টার কাজের অগ্রগতি নিয়ে সভা অনুষ্ঠিত আনুষ্ঠানিকভাবে উপজেলা পরিষদে বসলেন নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান বকুল শাহজাদপুরে মদের দোকান বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন রাজশাহীতে বিয়ের এক মাসের মাথায় গৃহবধূর মৃত্যু,থানায় মামলা স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে বাংলাদেশ স্কাউটস হবে আলোকবর্তিকা : এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী রাজশাহী মহানগর বিএনপির ৩০টি ওয়ার্ডের কমিটি ঘোষণা বগুড়ার খামারকান্দী সূর্য সন্তান ক্লাবের আয়োজনে ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত বগুড়ায় শিশু তামিম হত্যার মূল রহস্য উদঘাটন,গ্রেফতার-১ রাজশাহীর সাথে সারাদেশের রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রাজশাহীতে মৌসুমের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাতের রেকর্ড
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

নালিতাবাড়ীতে ৫ পরিবারে বন্যহাতির তাণ্ডব

শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে ৫ টি পরিবারে বসতঘরে বন্যহাতি তাণ্ডব চালিয়েছে।

বুধবার (৩ জুলাই) রাত নয়টার দিকে উপজেলার ভারত সীমান্তবর্তী নাকুগাঁও গ্রামের ৫টি পরিবারে ৩০-৪০টি বন্যহাতির একটি দল এ তাণ্ডব চালিয়ে ৫টি পরিবারের বসতঘরসহ সবকিছু তছনছ করে দিয়েছে। খেয়ে ও বিনষ্ট করে সাবাড় করেছে ওইসব পরিবারের গোলায় থাকা ধান, ভেঙে চুরমার করেছে ঘরে থাকা আসবাবপত্র। পায়ে মাড়িয়ে বিনষ্ট করেছে আমনের বীজতলা।

ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা জানান, দীর্ঘদিন ধরেই নাকুগাঁওসহ আশপাশের পাহাড়ি এলাকায় বন্যহাতি অবস্থান করে ফসলহানিসহ নানা তাণ্ডব চালিয়ে আসছিল। বুধবার রাত নয়টার দিকে ৩০ থেকে ৪০টি বন্যহাতির একটি দল আকস্মিক নাকুগাঁও গ্রামের ভারত সীমান্তঘেঁষা রঞ্জিত ঘোষ, সুমন রবিদাস, গ্রাম পুলিশ নিরঞ্জন রবিদাস, সিন্ধু ঢালু ও রূপেন ঢালুর বসতবাড়িতে একযোগে হানা দেয়। এসময় ওইসব বাড়ির সদস্যরা ভয়ে দিগিবিদিগ ছুটাছুটি করে চিৎকার শুরু করে।

বন্যহাতির দলটি ওইসব পরিবারের রান্না ঘর, গোয়াল ঘর ও বসত ঘরসহ মোট ৬টি ঘর ভেঙে ফেলে। খেয়ে ও ছিটিয়ে সাবাড় করে গোলায় থাকা খোড়াকির ধান ও চাল। ভেঙে চুরমার করে ঘরে রাখা আসবাবপত্র। বাড়ির টিউবওয়েল থেকে আমনের বীজতলা কিছুই রেহাই পায়নি বন্যহাতির তাণ্ডব থেকে। বন্যহাতির আক্রমণে আহত হয় একটি গরু। বাড়ির গাছপালাগুলোও খেয়ে এবং ভেঙে বিনষ্ট করে।

খবর পেয়ে আশপাশের লোকজন ছুটে আসে এবং হৈ-হুল্লোড় করে, সার্চ লাইট জ্বালিয়ে, পটকা ফাটিয়ে ও নাকুগাঁও স্থলবন্দর থেকে পে-লোডার নিয়ে শব্দ ব্যবহার করে হাতি তাড়ানোর চেষ্টা করে। প্রায় ঘণ্টাব্যাপী তাণ্ডব চালিয়ে পাহাড়ে ফিরে যায় বন্যহাতির দলটি।

এদিকে খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে নয়াবিল ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান, মধুটিলা রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা রফিকুল ইসলামসহ সংশ্লিষ্টরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সরকারের ঘোষিত ক্ষতিপূরণ দেওয়ার আশ্বাস দেন।

ক্ষতিগ্রস্থ রঞ্জিত ঘোষ জানান, সাড়ে আটটা থেকে নয়টার মধ্যে বন্যহাতি বাড়িঘরে হামলা চালায়। এসময় ঘরে থাকা দশ কাঠা জমির ধান, খোড়াকির চাল, গরুর খাদ্য খেয়ে ও ঘরে আসবাবপত্র ভাংচুর করে। হাতির আক্রমণ থেকে রেহাই পায়নি গরু এমনকি রান্নাঘরও।

ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান জানান, সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। হাতির তা-বে ঘরবাড়ি, ধান-চাল, আসবাবপত্র ও আমন বীজতলাসহ প্রায় ৮ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

মধুটিলা রেঞ্জ কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম জানান, সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। বীজতলা এবং ঘরবাড়ির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এলাকাবাসীসহ এলিফেন্ট রিসেপন্স টিমের সদস্যরা মিলে রাতে হাতি তাড়ায়। আমরা ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণ করেছি। যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে ক্ষতিগ্রস্থদের আবেদন করতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen − five =


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ

x
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com