বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ১০:২৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
এক যুগ পরে নিজের গানে মডেল হলেন ফারদিন রাজশাহীতে বিএনপির গায়েবানা জানাজা অনুষ্ঠিত রাবি ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদকের কক্ষে থেকে মাদক-অস্ত্র উদ্ধার ফরিদপুরের ভাঙ্গায় মুক্তিযোদ্ধাদের বিরুদ্ধে কটুক্তির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ বাঘায় (অনুর্ধ-১৭) প্রথম খেলায় ১-০ গোলে মনিগ্রাম ইউপি,দ্বিতীয় খেলায়-৩-১ গোলে পাকুড়িয়া জয়ী পাইকগাছায় প্রধান শিক্ষক ও সভাপতির বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও ঝাড়ু মিছিল একটি মানবিক আবেদন গলাচিপায় শিশু শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনায় মুগ্ধ হলেন পরিকল্পনা সচিব রাজশাহীতে ফজরের নামাজ পড়ে হাটাহাটির সময় যুবককে হত্যা বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন ফরিদপুর জেলা কমিটির উপদেষ্টা এ কে আজাদ এমপি
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

ফের ঈশ্বরদীর তাপমাত্রা ৩৯.৫ ডিগ্রী ছুঁয়েছে,বইছে তাপপ্রবাহ

নববর্ষের দিন থেকেই ফের ঈশ্বরদীর তাপমাত্রা বাড়তে শুরু করেছে।পারদের কাটা তীব্র তাপপ্রবাহের ছুঁই ছুঁই করছে।সোমবার (১৫ এপ্রিল) তাপমাত্রা ৩৯.৫ ডিগ্রী রেকর্ড হয়েছে। আর পহেলা বৈশাখে ছিল ৩৯ ডিগ্রী সেলসিয়াস।

এর আগে এপ্রিলের প্রথম দিনে দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ঈশ্বরদীতে ৩৯ ডিগ্রী রেকর্ড হয়েছিল।পরে ৬ এপ্রিল মৌসুমের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রী সেলসিয়াস স্পর্শ করে।

ঈশ্বরদী আবহাওয়া অফিস এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা যায়, গত ৬ এপ্রিলের পর তাপমাত্রা ক্রমশ: নিম্নমূখি হতে থাকে।৮ এপ্রিল ৩০.৫ ডিগ্রী এবং ১১ এপ্রিল ঈদের দিন ৩২.৮ ডিগ্রী রেকর্ড হয়।ঈদের পরদিন ১২ এপ্রিল থেকে তাপমাত্রা ফের উর্দ্ধমূখী হতে থাকে।গত শুক্রবার ১২ এপ্রিল ৩৬.৭ ডিগ্রী, শনিবার ১৩ এপ্রিল ৩৮.৫ ডিগ্রী এবং রবিবার ৩৯ ডিগ্রী রেকর্ড হয়েছে।

তাপপ্রবাহ সাথে নিয়েই নতুন বছরের আগমন ঘটেছে।পহেলা বৈশাখের দিন থেকে তীব্র রোদ ও অসহনীয় গরমের সাথে ভয়াবহ তাপপ্রবাহে দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে জনজীবন।রোদের প্রখরতা আর ভ্যাপসা গরমে হাঁসফাঁস অবস্থায় প্রাণ ওষ্ঠাগত।

প্রখর রোদে ঘাম ঝড়ানো তাপমাত্রার কারণে শ্রমজীবী মানুষ পড়েছেন চরম বিপাকে।শিশুদের গরমের তীব্রতায় দীর্ঘসময় ধরে পুকুরে নেমে ঝাপাঝাপি করতে দেখা গেছে।তীব্র খরায় ভূ-গর্ভস্থ পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়ায় টিউবওয়েলে পানি উঠছে না।ফলে উপজেলা জুড়ে তীব্র পানি সংকট দেখা দিয়েছে।

পৌরসভার পানি বিভাগের সহকারি প্রকৌশলী প্রবীর বিশ্বাস বলেন, সাপ্লাই লাইনে পানি সরবরাহের জন্য সবকটি মেশিন চালিয়েও পানি সরবরাহ করতে কষ্ট হচ্ছে।খরা মৌসুমের শুরুতেই এবারে ভূগর্ভস্ত পানির স্তর অনেক নীচে নেমে গেছে।

গরমের তীব্রতায় বয়স্ক ও শিশুরা পড়েছে বেশি ভোগান্তিতে।পানিশূন্যতায়ও অসুস্থ হচ্ছেন কেউ কেউ।তীব্র রোদ ও অসহনীয় গরমে রাস্তাঘাট-হাটবাজারে লোকসমাগম কমে গেছে।জরুরি কাজ না থাকলে মানুষজন তেমন বাইরে বের হচ্ছেন না।রোদের প্রখরতায় রাস্তার পিচ তপ্ত উষ্ণতা ছড়াচ্ছে।

ঈশ্বরদী আবহাওয়া অফিসের সহকারী পর্যবেক্ষক নাজমুল হক রঞ্জন জানান, ঈশ্বরদীসহ পাশ্ববর্তী এলাকায় পারদের কাঁটা মাঝারি তাপপ্রবাহর নিম্নতম সীমা অতিক্রম করে তীব্র তাপপ্রবাহের কাটা ছুঁই ছুঁই করছে।রবিবার (১৪ এপ্রিল) ৩৯ ডিগ্রী রেকর্ডের পর সোমবার (১৫ এপ্রিল) বেড়ে ৩৯.৫ ডিগ্রী হয়েছে।এরআগে গত ১ এপ্রিল ঈশ্বরদীতে দেশের সর্বোচ্চ মাত্রা ৩৯ ডিগ্রী সেলসিয়াস এবং শনিবার ৬ এপ্রিল ৪০ ডিগ্রীতে ওঠেছিল।চলতি সপ্তাহে তাপমাত্রা আরও বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানান তিনি। 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × two =


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ

x
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com