বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৩৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বাগমারাবাসীর সেবা করে যেতে চাই-এমপি আবুল কালাম আজাদ প্রচন্ড দাবদাহে পথচারী ও শ্রমজীবীদের মধ্যে হাতীবান্ধায় শরবত বিতরণ কমলাপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ছালাম মৃধার উঠান বৈঠকে জনতার ঢল নিজেই এখন গরম ও লোডশেডিং চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির দুঃখ প্রকাশ,দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার অঙ্গীকার আশুলিয়ায় জাতীয় শ্রমিক লীগের মে দিবসের প্রস্তুতি সভা মাদক অপরাধ করতে উৎসাহিত করে : রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার হুমায়ুন কবীর আদালতের নির্দেশে বগুড়ার নন্দীগ্রাম থেকে উদ্ধার হওয়া মূর্তি মহাস্থান জাদুঘরে হস্তান্তর লিগ্যাল এইড’র পক্ষ থেকে রাসিক মেয়রকে সম্মাননা স্মারক প্রদান
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

বাঘায় বকেয়া বিলের লাইন বিচ্ছিন্ন করতে গিয়ে মারধরের শিকার লাইনম্যান

রাজশাহীর বাঘায় আসাদুজজামান নামে এক বিদ্যুৎ কর্মচারিকে বেধড়ক মারধরসহ মোটরসাইকেল ভাংচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আসাদুজ্জামান নাটোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর বাঘা জোনাল অফিসে লাইনম্যান পদে কর্মরত।

সোমবার ৪ মার্চ উপজেলার গড়গড়ি ইউনিয়নের আশরাফপুর গ্রামের কাবিল উদ্দীনের বিদ্যুৎ লাইনের সংযোগ বিছিন্ন করায় এ ঘটনা ঘটে। পরে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

নাটোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর বাঘা জোনাল অফিস জানায়,উপজেলার আশরাফপুর গ্রামের কাশেম আলীর ছেলে কাবিল উদ্দীনের সের বিদ্যুৎ বিল বাঁকি ছিল। এ কারণে তার সংযোগ বিছিন্ন করে দেন লাইনম্যান আসাদুজ্জামান। পরে কাবিল উদ্দীন,তার ভাই হাবিল উদ্দীন ও দুই ভাইয়ের ছেলে মনির এবং ইমনসহ অজ্ঞাত লোকজন বাঁশের লাটিসোটা দিয়ে মারধর করে এবং তার মোটরসাইকের ভাংচুর করে।
আহত ওই লাইনম্যান আসাদুজ্জামান মুঠোফোনে জানান, অফিসের অনুমতিক্রমে সকালে সেখানে বিদ্যুৎ বিল বকেয়ার কারনে লাইন বিচ্ছিন্ন করতে গেলে গ্রাহক কাবিল তার ভাই হাবিল ও হাবিলের ছেলে আমাদের পথরোধ করে এলোপাথারী ভাবে মারপিট করে।

বাঘা জোনাল অফিসের হিসাব রক্ষক নাজমুল হোসেন জানান,খবর পেয়ে সহকর্মীদের নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে আসাদুজ্জামানকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে চিকিৎসা দেওয়া হয়। এজিএম দেলোয়ার হোসেন জানান, বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের কারণে লাইন বিছিন্ন করায়, সেখানে তাকে মারধরসহ মোটরসাইকেল ভাংচুর করা হয়। এ বিষয়ে তিনি বাদি হয়ে থানায় অভিযোগ করেছেন। এবিষয়ে জানতে চেয়ে কাবিল উদ্দীনের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করলেও ফোন রিসিভ করেননি।

বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমিনুল ইসলাম জানান, অভিযোগের প্রেক্ষিতে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eleven − eight =


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ

x