মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৫:৪১ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
সারিয়াকান্দিতে নিখোঁজের ৯ দিন পর ফুফাতো ভাইয়ের বাড়ি থেকে শিক্ষার্থীর বস্তাবন্দী অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার বাঘায় অভিযান চালিয়ে দুটি ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধ বাঘায় বকেয়া বিলের লাইন বিচ্ছিন্ন করতে গিয়ে মারধরের শিকার লাইনম্যান সোনাতলায় রাস্তার পাশে ঝুকিপূর্ণ পুকুর খননের অভিযোগ,হুমকিতে বসতভিটা ও রাস্তা মিতালী এক্সপ্রেসের ইঞ্জিনের ধাক্কায় প্রাণ গেল দুইজনের বাগমারায় হাত বাড়ালেই মিলছে মাদক,উদ্বিগ্ন অভিভাবকরা তাহেরপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের অভিযানে শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী জুয়েল গ্রেফতার রাজশাহীতে র‍্যাবের অভিযানে গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী ও ৪ মাদকসেবী গ্রেফতার রাজশাহীর লক্ষীপুরে ওয়ানওয়ে রাস্তা খুলে দেওয়ার দাবিতে মানববন্ধন রাজশাহীতে ফেব্রুয়ারী মাসে ১০ নারী-শিশু নির্যাতনের শিকার
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

রাজশাহীর বাঘায় মাংস বিক্রি নিয়ে কসাইয়ের হাতে কসাই খুন

রাজশাহীর বাঘায় মাংস বিক্রি করার দ্বন্দ্বে প্রকাশ্যে ছুরিকাঘাতে কসাইয়ের হাতে মামুন হোসেন (৩০) নামে আরেক কসাই খুনের ঘটনা ঘটেছে ।

শনিবার ২০ জানুয়ারি সকাল ১০টার দিকে উপজেলার আড়ানী হাটে এই ঘটনা ঘটেছে। নিহত কসাই মামুন হোসেন আড়ানী পৌরসভার পিয়াদাপাড়া গ্রামের মৃত রহিম উদ্দিনের ছেলে।
জানা যায়, মামুন হোসেন আড়ানী হাটে গরু জবাই করে মাংস বিক্রি করছিল। এ সময় একই গ্রামের মৃত খোদা বক্সের ছেলে খোকন হোসেনও পাশেই মাংস বিক্রি করছিল। দুই   জনের মধ্যে মাংস বিক্রি নিয়ে কথাকাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে খোকনের হাতে থাকা ধারালো ছুরি দিয়ে নিহত মামুনকে কুপিয়ে জখম করে। তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে  রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয় ।এ বিষয়ে খোকনের লেবার আবদুস সালাম ও রফিকুল ইসলাম বলেন, মামুন ও খোকন পরস্পর মামাতো ফুফা্তো ভাই। তারা এক সাথে মাংসের ব্যবসা করতেন। কিছুদিন আগে  থেকে তারা ব্যবসা আলাদা করেছেন। শনিবার তারা দুইজন পাশাপাশি মাংস বিক্রি  করছিল। খোকন ৭০০ টাকা এবং মামুন ৬৫০ টাকা প্রতি কেজি হিসেবে মাংস বিক্রি করছিল। এ নিয়ে দুইজনের মধ্যে তর্কবির্তকের এক পর্যায়ে শতশত মানুষের মাঝে প্রকাশ্যে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে মামুনকে হত্যা করে।

এ বিষয়ে মামুনের ছোট ভাই মানিক হোসেন বলেন, তারা ব্যবসা আলদা করার পর থেকে খোকন বিভিন্ন সময়ে মামুনকে হুমকি দিয়ে আসছিল। আমাকে বিষয়টি কয়েকদিন আগে অবগত করেছিল। যেহেতু আমরা পরস্পর মামাতো ফুফা্তো ভাই এ নিয়ে উভয়কে দ্বন্দ্ব  না করার জন্য নিষেধ করেছিলাম। তারপরও এমন ঘটনা ঘটিয়েছে খোকন। তদন্ত করে আইনী ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য দাবি জানাচ্ছি।

এ বিষয়ে বাঘা থানার ওসি আমিনুল ইসলাম বলেন, ঘটনা জানার সাথে সাথে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। বর্তমানে খোকন পলাতক রয়েছে গ্রেফতারের চেস্টা অব্যাহত আছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ