শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:৪৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
সারিয়াকান্দিতে থানা পুলিশের অভিযানে মাদক ব্যবসায়ীসহ গ্রেফতার-২ ‘বাংলাদেশ গুড সোল ট্রুপস’ উদ্যোগে দিনব্যাপী রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচি শাহ্ মখদুম কলেজের শিক্ষক জীবন ঘোষের পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন উম্মাহাতুল মু’মিনীন (রা.) বালক বালিকা মাদ্রাসার আলোচনা সভা এবং পুরুষ্কার বিতরণী সম্পন্ন ভাষা শহীদদের স্মরণে রাজশাহী সাংবাদিক সংস্থার শ্রদ্ধাঞ্জলি সারিয়াকান্দিতে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত রাজশাহী এনজিও ফেডারেশন উদ্যোগে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডে মহান শহিদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন রামেবিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন আসছে কেএইচ রিপনের হিন্দি গান ‘কাল নাগিনী’
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

নাতির কাঁধের উপর ভর দিয়ে এসে ভোট দিলেন দাদু

চলছে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন।সকাল ৮ টা থেকে শুরু হয়ে ভোটগ্রহণ চলবে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত।তীব্র শীত ও কুয়াশা মাড়িয়ে ভোটকেন্দ্রে ছুটে আসছেন প্রতিবন্ধী, সচল-অচলসহ বিভিন্ন ধরনের নারী-পুরুষ।এমনই একজন ভোটার হলেন আড়পাড়া ইউনিয়নের কেষ্টপুর গ্রামের ৮৫ বছর বয়সী মোতালেব মোল্লা।যিনি এক হাতে লাঠির উপর এবং অপর হাত নাতির কাঁধের উপরে রেখে ভোট দিতে এসেছেন।

মোতালেব মোল্লা বলেন, ভোট দেওয়া আমার কাছে একটি আনন্দের ব্যাপার আর এই আনন্দ আমি প্রতিবারই উপভোগ করি, ভোট দিতে আমার অনেক ভালো লাগে তাই আমি অনেক কষ্ট করে হলেও ভোট দিতে এসেছি এবং ভোট দিয়ে অনেক ভালো লেগেছে।

একই ইউনিয়নের গোপালগ্রামের প্রতিবন্ধী মোমেন শিকদার যিনি দুইটি ক্রেসের উপরে ভর দিয়ে ভোট দিতে এসেছেন।প্রতিবন্ধীকতাকে জয় করে সকালের কুয়াশা মাড়িয়ে ভোট দিয়ে তিনি অনেক আনন্দ পেয়েছেন বলে অভিমত প্রকাশ করেন।

মোমেন শিকদার বলেন, আমি প্রতিবারই ভোট কেন্দ্রে আসি ভোট দিতে আমার অনেক আনন্দ লাগে।এবছর শালিখা উপজেলার মোট ৫৪ টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ চলছে।যেখানে ভোটার রয়েছে ১ লক্ষ ৪২ হাজার ৪ শত ৭০ জন।

আড়পাড়া মহিলা কলেজ, চুকিনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কুমারকোটা আলিম মাদ্রাসা, পুকুরিয়া সরকরি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আড়পাড়া বালিকা বিদ্যালয়, আড়পাড়া আলিম মাদ্রাসাসহ কয়েকটি কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায়, অসুস্থ পুরুষ মহিলারাও ভোট দিতে এসেছেন।শুধু তাই নয় সদ্য নবজাতকের মায়েরাও ভোট দিতে এসেছেন।

একপ্রকার উৎসব মুখের পরিবেশে চলছে ভোটগ্রহণ।একদিকে ভোটগ্রহণ হচ্ছে অপরদিকে অধিকাংশ কেন্দ্রের বাইরে বসানো হয়েছে চুরি-ফিতা সহ বিভিন্ন জিনিসের দোকান।ছোট ছোট বাচ্চারাও মায়ের ভেঁজে দেওয়া ফাপর বিক্রি করেও আনন্দ পাচ্ছেন।

এমন একজন ফাপর বিক্রতা আবদুল্লাহ।সে বলে, আমার মা ৫০ প্যাকেট মত ফাপর ভেঁজে দিয়েছে।আমি দিনভর তা বিক্রি করব ইতিমধ্যে ২৫ প্যাকেট ফাপর বিক্রি করেছি তা থেকে ১০০ টাকা মত লাভ হয়েছে।

বিভিন্ন ভোটকেন্দ্র ঘুরে আরো দেখা যায়,ভোট দিতে আসছেন ৯৫ এর কাছাকাছি বেশ কয়েকজন বৃদ্ধ-বৃদ্ধা।এমনই একজন বয়বৃদ্ধ হলেন আড়পাড়া ইউনিয়নের গোপালগ্রামের বীরেন্দ্রনাথ গাঈন।

বীরেন্দ্রনাথ গাইন বলেন, অনেকদিন পর ভোট দিতে আসি।আর এই ভোট দেওয়াটা আমার কাছে একটা আনন্দের অংশ মনে হয় তাই আমি সকালে ঘুম থেকে উঠেই ভোট দিতে এসেছি এবং সুন্দরভাবে ভোট দিয়েছি।

অপর একজন বয়বৃদ্ধা হলেন মাজু বিবি।তিনি বলেন, বাবারে আসতি অনেক কষ্ট হয়েছে তাও এসেছি শুধু একটা দিতে।

সহকারি রিটার্নিং কর্মকর্তা ও শালিখা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হরেকৃষ্ণ অধিকারী বলেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন কে শান্তিপূর্ণ ও সুষ্ঠু করার লক্ষ্যে মাগুরা জেলার মান্যবর জেলা প্রশাসকের নির্দেশনায় আমরা কাজ করে যাচ্ছি আর তাতে করেই মানুষ নির্বিঘ্নে ভোট দিতে এসেছেন এবং উৎসব মূখর পরিবেশে ভোট দান করছে।দুপুর দুইটা পর্যন্ত ৪০ শতাংশ ভোট কাস্টিং হয়েছে বলেও জানান তিনি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ