রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ১২:১৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
ফরিদপুরে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ইমাম সম্মেলন ও শিক্ষক নির্দেশিকা বই বিতরণ সাংবাদিক রেজাউল করিমের শ্বশুরের মৃত্যুতে রাজশাহী বরেন্দ্র প্রেসক্লাবের শোক শাহাদাৎ হোসেন মুন্নার জন্মদিন আজ রনচন্ডী স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থী বিটিভির নৃত্যানুষ্ঠানে নন্দীগ্রামে জামালপুর পাঁচপীর দাখিল মাদ্রাসায় বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত জমকালো আয়োজনে রাবি প্রেসক্লাবের ৩৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন শাহজাদপুরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রাণ গেল কৃষকের নালিতাবাড়ীতে ঐতিহাসিক পতাকা উত্তোলন দিবস পালিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রীর শ্রদ্ধা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পুনরায় রেজাউল করিম মন্টুকে নির্বাচিত করতে এলাকাবাসীর মতবিনিময়
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

পাইকগাছা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জেলার ৪র্থবার শ্রেষ্ঠ ওসি নির্বাচিত

খুলনার পাইকগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রফিকুল ইসলাম ৪র্থবার জেলার শ্রেষ্ঠ ওসি নির্বাচিত হয়েছেন।

শনিবার সকালে খুলনা জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে মাসিক সভায় পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ সাঈদুর রহমান (পিপিএম সেবা) ৪র্থবার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ মোঃ রফিকুল ইসলামের হাতে সম্মাননা ক্রেস্টসহ সনদপত্র তুলে দেন।

গত অক্টোবর মাসের মামলা তদন্ত,ওরেন্টের আসামি গ্রেফতার, বিএনপির জামায়াতের নাশকতা সন্ত্রাস ও মাদক প্রতিরোধে আইনশৃংখলার উন্নতি অব্যাহত রাখা সহ সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা ও নিরাপত্তায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখায় তাকে এ সম্মাননা দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে অফিসার ইনচার্জ মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, এ অর্জন শুধু আমার একার নয়, এ অর্জন আমাদের থানার সকল অফিসার ও ফোর্সের সম্মিলিত প্রচেষ্টা ও পাইকগাছা উপজেলা বাসীর সহযোগিতার ফল।পুরস্কারটি পেয়ে আমি খুবই খুশি এবং অনুপ্রাণিত।এ পুরস্কারটি আমার দায়বদ্ধতা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে।আগামীতে জনগণকে আরও বেশি সেবা দিতে এ পুরস্কারটি আমাকে অনুপ্রেরণা যোগাবে।

পাইকগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, আমাদের সমাজের প্রতিটি স্তরে বিচরণ করছে সর্বনাশা মাদক।ঘুনে পোকার মত কুরে কুরে খাচ্ছে মানব অস্থিমজ্জা।এ ভয়ানক পরিস্থিতিতে উদ্বিগ্ন বাংলাদেশসহ সারা বিশ্ব অভিভাবকরা আতঙ্কিত, উৎকণ্ঠিত।মাদককে ঘিরে যেসব সমস্যা তৈরি হয় সেটা একটা পরিবারকে বিপর্যয়ের দিকে ঠেলে নিয়ে যায়।মাদক সমস্যা পারিবারিক ক্ষেত্র থেকে ছড়িয়ে যায় সমাজের গন্ডিতে।শেষ পর্যন্ত সেটা রাষ্ট্রীয় সমস্যায় পরিণত হয়।বাংলাদেশে বেশি ভাগ মাদক আসে ভারত সীমান্ত দিয়ে।এই থানা বিভিন্ন দিক থেকে সীমান্ত বেষ্টনী হওয়ায় মাদক কারবারিদের বিচরণও বাড়ছে।অন্যান্য থানার চেয়ে আয়তনে ও জনসংখ্যায় ছোট হলেও মাদকের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

ওসি মো: রফিকুল ইসলাম আরও বলেন, যুব সমাজ আজ ফেন্সিডিল, হিরোইন, গাঁজা ইয়াবাসহ মাদকে আসক্ত।মাদকের মাধ্যমে একটি দেশ ধ্বংস হয়ে যাওয়ার জন্য যথেষ্ট।আমরা যদি মাদক নিমূর্লে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে না পারি তাহলে আমাদের যে কর্মোজ্জ্বল ভবিষ্যৎ যে সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কাজ করে যাচ্ছেন সেটা আমাদের জন্য হুমকিস্বরূপ হয়ে দাঁড়াবে।মাদকের সঙ্গে কোনো আপস নয়।

মরণ নেশার ট্যাবলেট ইয়াবা, গাঁজা, হিরোইন, মাদক বিরোধী অভিযানে তৎপর পাইকগাছা থানা পুলিশ।

সেই সাথে বাল্য বিবাহ, জঙ্গীবাদ সহ অন্যান্য অপরাধজনক কাজ থেকেও বিরত থাকার আহব্বান জানিয়ে ওসি রফিকুল ইসলাম আরোও বলেন, কেবল পুলিশ দিয়ে সমাজ থেকে মাদকের প্রবণতা দূর করা যায় না।এজন্য সমাজের সর্বস্তরের সচেতন সকলকে মাদকের বিরুদ্ধে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।তরুণ প্রজন্মকে খেলাধূলা, শিল্প-সংস্কৃতির কাজে মনোনিবেশ রাখতে হবে।সমাজ থেকে মাদক নামের এ ব্যাধি সমূলে দূর করতে হবে।মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের যুদ্ধ ঘোষণা করে এযুদ্ধে সচেতন সকলকে অংশ নিতে হবে।আপনাদের সকলের আন্তরিক সহযোগীতায় পাইকগাছা উপজেলা বাসীকে অচিরেই মাদক মুক্ত করবো ইনশাআল্লাহ।

উল্লেখ্য, ওসি মোঃ রফিকুল ইসলাম ২০১০ সালে এসআই হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেন।২০১৯ সালে পরিদর্শক হিসেবে পদোন্নতি পান।ইতোপূর্বে তিনি ঝিনাইদহ এর কালিগঞ্জ থানায়, ঝিনাইদহ ডিবি পুলিশে, সাতক্ষীরার কলারোয়া ও তালা থানা এবং খুলনার ডুমুরিয়া ও পাইকগাছা থানায় কর্মরত ছিলেন।পরবর্তীতে ১এপ্রিল ২৩ সালে পাইকগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ হিসাবে যোগদান করার পর তিনি ৪র্থ বার সম্মাননা ও পুরস্কার গ্রহণ করেন।তিনি কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালী উপজেলার যদুবয়রা গ্রামের এক সমভ্রান্ত পরিবারের সন্তান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ