বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:৫৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বরিশালের ছয়টি আসনে ৬৪ জন প্রার্থী

খান মেহেদী :- আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেতে ফরম সংগ্রহ ও জমা দেওয়া সময় শেষ হয়েছে।বরিশাল বিভাগের ২১ আসনে প্রার্থী হওয়ার জন্য ২৫৮ জন প্রার্থী মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন।এর মধ্যে বরিশাল জেলার ছয়টি আসনের বিপরীতে ৬৪ জন প্রার্থী ফরম সংগ্রহ করেছেন।

আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার জানিয়েছেন, কতোজন মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন তা জানানো যাবে না।সেটা গোপনীয় বিষয়।

তিনি বলেন, জমা দেওয়া মনোনয়ন ফরম যাচাই-বাছাই করা হবে।পরে প্রস্তুত করে আজ ২৩ নভেম্বর মনোনয়ন বোর্ডের সভায় উপস্থাপন করা হবে।

বলরাম পোদ্দার বলেন, বরিশাল জেলার ছয়টি আসনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ২০টি মনোনয়ন ফরম বিক্রি হয়েছে বরিশাল-২ আসনে।সবচেয়ে কম বিক্রি হয়েছে বরিশাল-১ আসনে।ওই আসনের জন্য একমাত্র মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন বর্তমান সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ।

সূত্রমতে, বিভাগের মর্যাদাপূন বরিশাল-৫ সদর আসনে প্রার্থী হওয়ার লড়াইয়ে শামিল হতে ১০ নেতা মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন।

তারা হলেন-আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, বর্তমান সংসদ সদস্য ও প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক শামীম, সিটি কর্পোরেশনের সদ্য সাবেক মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ, মাহবুব উদ্দিন আহমেদ বীর বিক্রম, সদর উপজেলার চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টু, আওয়ামী লীগ নেতা সালাউদ্দিন রিপন, মোঃ মশিউর রহমান খান, মোহাম্মদ আরিফ হোসেন (আরিফিন মোল্লা), অ্যাডভোকেট মোর্শেদা বেগম ও এসএম জাকির হোসেন।

তবে এরমধ্যে বরিশাল-৫ আসনে প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক তার মনোনয়ন ফরম জমা দেননি বলে গুঞ্জন উঠেছে।

বরিশাল-২ আসনে প্রার্থী হওয়ার জন্য মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন ২০ জন।এর মধ্যে প্রবীণদের মধ্যে আলোচনায় রয়েছেন, সাবেক সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট তালুকদার মোঃ ইউনুস এবং বরিশাল বিভাগ উন্নয়ন ফোরামের সভাপতি ও শিল্পপতি ক্যাপ্টেন এম মোয়াজ্জেম হোসেন।নবীন প্রার্থীদের মধ্যে ব্যাপক আলোচনায় রয়েছেন, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহ-সভাপতি মোঃ মাজহারুল ইসলাম মিরাজ।

বরিশাল-৩ আসনে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন ১৩ জন।এরমধ্যে তৃণমূল নেতাকর্মী ও সমর্থকদের সমর্থিত প্রার্থী হিসেবে আলোচনার অগ্রভাগে রয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতা আতিকুর রহমান আতিক।পাশাপাশি নতুন প্রার্থী হিসেবে ভোটারদের নজরে রয়েছেন কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় রাষ্ট্রবিজ্ঞান অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোঃ জহির উদ্দিন খসরু।

বরিশাল-৪ আসনে আটজন প্রার্থী মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করলেও আলোচনায় রয়েছেন, বর্তমান সংসদ সদস্য পঙ্কজ দেবনাথ ও মোঃ শাহে আলম।

বরিশাল-৬ আসনে নৌকার মাঝি হতে ফরম সংগ্রহ করেছেন ১২ জনে।এরমধ্যে আলোচনায় রয়েছেন-আব্দুল হাফিজ মল্লিক ও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার এসএম মঞ্জুরুল হক মঞ্জু।

তবে দীর্ঘসময় ধরে একাধিক জাতীয় সংসদ নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করা সাংবাদিকরা মনে করেন একটি আসন থেকে ১২ থেকে ১৫ জন দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করার বিষয়টি সাংগঠনিক দুর্বলতার অংশ।তৃণমূল পর্যায়ের নেতাদের মধ্যে বিভক্তি রয়েছে, যাকে অভ্যন্তরীণ বিরোধও বলা যায়।এরসাথে একাদশ সংসদের সদস্যরাও জড়িয়ে পরেছেন।তা না হলে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে এক দলেই এতো মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের মতো বিষয় সৃষ্টি হতো না।সব মিলিয়ে ক্ষমতাসীন দলের নেতারা নিজেরা নিজেদের প্রতিপক্ষ হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ