সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৭:২৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রাজশাহী বরেন্দ্র কলেজের নতুন অধ্যক্ষ রণজিৎ কুমার সাহা জাতীয় ব্লাইন্ড ক্রিকেট পরিচালনা কমিটির সভাপতি হলেন সংগীতশিল্পী ফারদিন রাজশাহীতে বিশ্ব মেট্রোলজি দিবস পালন সারিয়াকান্দিতে উপজেলা পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যানকে সংবর্ধনা বিয়েতে রাজি না হওয়ায় আত্মহত্যা, প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে মামলা সারিয়াকান্দির সেই মেধাবী ছাত্র সাকিবুল হাসানের দায়িত্ব নিলেন সাহাদারা মান্নান এমপি সারিয়াকান্দিতে জিপিএ-৫ পেয়েও অর্থের অভাবে কলেজে ভর্তি অনিশ্চিত সাকিবুল হাসানের সারিয়াকান্দিতে ইউএনও’র সাথে নবনির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যানের শুভেচ্ছা বিনিময় সারিয়াকান্দিতে সরকারি খাদ্য গুদামে ইরি-বোরো ধান ও চাল সংগ্রহের শুভ উদ্বোধন সারিয়াকান্দিতে ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেটসহ গ্রেফতার-২
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

পঞ্চগড়ে রাতের আধারে কৃষকের সরিষার ক্ষেত নষ্ট করলো দুর্বৃত্তরা

পঞ্চগড় সদর উপজেলার হাড়িভাষা ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের কৃষক জাহিদুল ইসলামের আড়াই বিঘা জমির সরিষার ক্ষেত নষ্ট করলো দুর্বৃত্তরা।এতে দিশেহারা হয়ে পড়েছে কৃষক।

শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) দেবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী কৃষক জাহিদুল ইসলামের এই জমি বাপের ৩৫ সম্পদ বর্তমানে এই জমির খতিয়ানের মালিক তারা।এবারও চলতি মৌসুমে তিনি তার ৮২ শতক জমিতে সরিষা চাষ করেন।

শুক্রবার দিবাগত রাতে জমির সমস্ত সরিষার গাছ জঙ্গল মারা কীটনাশক দিয়ে নষ্ট করেন দুর্বৃত্তরা।সরেজমিনে গিয়ে অভিযোগের সত্যতাও মিলেছে।

স্থানীয়রা বলেন, জাহিদুল ইসলাম একজন সৎ গরীব কৃষক সে দিনরাত পরিশ্রম করে (৮২ শতাংশ) জমিতে চাষআবাদ করেন।তার জমিতে লাগানো সরিষার গাছ যারা নষ্ট করেছে তারা অমানবিক কাজ করেছে।আমরা এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে সঠিক বিচার দাবি করতেছি।

এ বিষয়ে কৃষক জাহিদুল ইসলাম সাথে কথা বললে তিনি বলেন,আমি শনিবার সকালে জমি দেখার জন্য জমিতে যাই।গিয়ে দেখি আমার জমিতে সরিষার গাছ জঙ্গল মারা ওষুধ দিয়ে নষ্ট করেছে আসিমুদ্দিন এবং জহিরুল।এদের সাথে আমাদের দীর্ঘদিনের শত্রুতা।এরই জের ধরে গেল বছর আমার জমিনে লাগানো বাদাম খেত রাতের বেলায় তারা বাদাম গুলো চুরি করে নিয়ে যায়।খুব কষ্ট করে চাষআবাদ করি। এই ক্ষতিতে আমি মানসিকভাবে ভেঙ্গে পরেছি, এই ফসল কর্তনে প্রায় ৫০ / ৬০ হাজার টাকা ক্ষতি হয়েছে। যদি উপজেলা কৃষি অফিস থেকে আমাকে একটু আর্থিক সহযোগিতা করতেন তাহলে হয়তো আমি উপকৃত হবো।

এ বিষয়ে হাড়িভাষা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরে আলম মুঠোফোনে বলেন, আসলে এইধরনের কাজ খুব জঘন্য ঘৃণিত কাজ। যদিও রাতের আঁধারে করেছেন কে করেছে সেটা কেউ বলতে পারে না।আমি একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে এর তীব্র প্রতিবাদ জানাই এবং পরবর্তীতে সততা পেলে আইন আনুক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × 3 =


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ

x