ঢাকা ০২:৫৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১৭ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল 'যমুনা প্রতিদিন ডট কম' এ সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে।
সংবাদ শিরোনাম :
৫৩ বিজিবির পৃথক অভিযানে ভারতীয় ২২টি গরু সহ একজন আটক চারঘাটে ইসলামী ব্যাংক এজেন্ট মালিকের বিরুদ্ধে আয়কর ফাঁকির অভিযোগ পত্নীতলায় জেলা প্রশাসকের সাথে মতবিনিময় সভা মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত চট্টগ্রাম কলেজ প্রাক্তন ছাত্রলীগ পরিষদের যৌথ সভা অনুষ্ঠিত ৭টি উপ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করা আহ্বান বঙ্গদ্বীপ এম এ ভাসানীর নড়াইলে প্রেমের ফাঁদে ফেলে স্ত্রীকে নির্যাতন ও মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগ কুড়িগ্রাম সদরে জমি নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১৫ শেখ হাসিনার গাড়ি বহর হামলা মামলায় সাক্ষ্য দিলেন বিএনপি নেতা আমানউল্লাহ আমানসহ দুজন  চাটখিলে দিনমজুরের লাশ উদ্ধার

বিরামপুরে ২৬০ বস্তা সম্পা কাটারী ধান আত্মসাৎ

নূর ইসলাম,বিরামপুর (দিনাজপুর)
  • আপডেট সময় : ০৯:৪৫:৪৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২০ জানুয়ারী ২০২৩ ১৭ বার পড়া হয়েছে
যমুনা প্রতিদিন অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

দিনাজপুর বিরামপুরে গত (১৫ই জানুয়ারী) রবিবার আনুমানিক দুপুর ২ টার দিকে বিরামপুর উপজেলার জোতবানী কেটরা হাটের মেসার্স মুহিত হাসান এন্টারপ্রাইজ ও আয়ড়া মোড় জনৈক নজরুল ইসলামের ঘর থেকে তাছের উদ্দিন মন্ডলের ছেলে আনিছুর রহমান খোকন সর্বমোট ২৬০ (দুইশত ষাট) বস্তা, মোট ওজন -১৮,২০০ কেজি, সম্পা কাটারী ধান ক্রয় করেন, যার মূল্য-৭,৩৭, ৭০৬/- টাকা, আনিছুর রহমান খোকন ক্রয়কৃত ধান মেসার্স দরদী অটোরাইস মিল পুলহাট দিনাজপুরে পাঠানোর জন্য। দালালের মাধ্যমে একটি ট্রাক ভাড়া করেন।

ভাড়াকৃত ট্রাকে সব ধান লোড করে দিনাজপুর দরদী আটো রাইস মিলের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিতে বলেন। কিন্তু ভাড়াকৃত সেই ট্রাক দিনাজপুর দরদী আটো রাইস মিলে না যায়ে সব ধান নিয়ে পালিয়ে যায়।

অজ্ঞাতনামা আত্মসাৎকারী আসামীরা আনিছুর রহমানের সরলতার সুযোগ নিয়ে বিশ্বাস স্থাপনের মাধ্যমে তার নিকট থেকে প্রতারনা মুলকভাবে ২৬০ বস্তা সম্পা কাটারী ধান, ট্রাকে ভূয়া নাম্বার প্লেটযুক্ত করে নিয়ে গিয়ে আত্মসাৎ করে অজ্ঞাত জায়গায় নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় (১৭ই জানুয়ারী) মঙ্গলবার বিরামপুর থানায় মোঃ আনিছুর রহমান খোকন (৪২),বাদী হয়ে বিরামপুর থানায় একটি মামলা করে, মামলা নং-০৬,তারিখ-১৭ জানুয়ারী, ২০২৩ ধারা-৪২০/৪০৬ পেনাল কোড রুজুর প্রেক্ষিতে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে আসামিদের সনাক্তকরন সহ আত্মসাৎকৃত ধানের অবস্থান নির্নয় করে গত দুই দিন কুষ্টিয়া সদর থানা এলাকা হতে আত্মসাৎকৃত সমুদয় ধান ও ব্যবহৃত ট্রাক উদ্ধার করে বিরামপুর থানা পুলিশ, এ সময় ট্রাক ও ধান রেখে পালিয়ে যায় আসামীরা।

বিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি, সুমন কুমার মহন্ত জানান,১৯ ই জানুয়ারী বৃহস্পতিবার ভোরে উদ্ধারকৃত ধান ও ট্রাক বিরামপুর থানায় আনা হয়েছে, উদ্ধার করা ধান মালিকের নিকট হস্তান্তর প্রক্রিয়াধীন।জড়িত থাকা আসামিদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে,আমরা খুব তারাতাড়ি আসামীদের কে ধরিয়ে ফেলবো।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

বিরামপুরে ২৬০ বস্তা সম্পা কাটারী ধান আত্মসাৎ

আপডেট সময় : ০৯:৪৫:৪৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২০ জানুয়ারী ২০২৩

দিনাজপুর বিরামপুরে গত (১৫ই জানুয়ারী) রবিবার আনুমানিক দুপুর ২ টার দিকে বিরামপুর উপজেলার জোতবানী কেটরা হাটের মেসার্স মুহিত হাসান এন্টারপ্রাইজ ও আয়ড়া মোড় জনৈক নজরুল ইসলামের ঘর থেকে তাছের উদ্দিন মন্ডলের ছেলে আনিছুর রহমান খোকন সর্বমোট ২৬০ (দুইশত ষাট) বস্তা, মোট ওজন -১৮,২০০ কেজি, সম্পা কাটারী ধান ক্রয় করেন, যার মূল্য-৭,৩৭, ৭০৬/- টাকা, আনিছুর রহমান খোকন ক্রয়কৃত ধান মেসার্স দরদী অটোরাইস মিল পুলহাট দিনাজপুরে পাঠানোর জন্য। দালালের মাধ্যমে একটি ট্রাক ভাড়া করেন।

ভাড়াকৃত ট্রাকে সব ধান লোড করে দিনাজপুর দরদী আটো রাইস মিলের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিতে বলেন। কিন্তু ভাড়াকৃত সেই ট্রাক দিনাজপুর দরদী আটো রাইস মিলে না যায়ে সব ধান নিয়ে পালিয়ে যায়।

অজ্ঞাতনামা আত্মসাৎকারী আসামীরা আনিছুর রহমানের সরলতার সুযোগ নিয়ে বিশ্বাস স্থাপনের মাধ্যমে তার নিকট থেকে প্রতারনা মুলকভাবে ২৬০ বস্তা সম্পা কাটারী ধান, ট্রাকে ভূয়া নাম্বার প্লেটযুক্ত করে নিয়ে গিয়ে আত্মসাৎ করে অজ্ঞাত জায়গায় নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় (১৭ই জানুয়ারী) মঙ্গলবার বিরামপুর থানায় মোঃ আনিছুর রহমান খোকন (৪২),বাদী হয়ে বিরামপুর থানায় একটি মামলা করে, মামলা নং-০৬,তারিখ-১৭ জানুয়ারী, ২০২৩ ধারা-৪২০/৪০৬ পেনাল কোড রুজুর প্রেক্ষিতে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে আসামিদের সনাক্তকরন সহ আত্মসাৎকৃত ধানের অবস্থান নির্নয় করে গত দুই দিন কুষ্টিয়া সদর থানা এলাকা হতে আত্মসাৎকৃত সমুদয় ধান ও ব্যবহৃত ট্রাক উদ্ধার করে বিরামপুর থানা পুলিশ, এ সময় ট্রাক ও ধান রেখে পালিয়ে যায় আসামীরা।

বিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি, সুমন কুমার মহন্ত জানান,১৯ ই জানুয়ারী বৃহস্পতিবার ভোরে উদ্ধারকৃত ধান ও ট্রাক বিরামপুর থানায় আনা হয়েছে, উদ্ধার করা ধান মালিকের নিকট হস্তান্তর প্রক্রিয়াধীন।জড়িত থাকা আসামিদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে,আমরা খুব তারাতাড়ি আসামীদের কে ধরিয়ে ফেলবো।