ঢাকা ০৬:৪৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল 'যমুনা প্রতিদিন ডট কম' এ সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে।
সংবাদ শিরোনাম :
৫৩ বিজিবির পৃথক অভিযানে ভারতীয় ২২টি গরু সহ একজন আটক চারঘাটে ইসলামী ব্যাংক এজেন্ট মালিকের বিরুদ্ধে আয়কর ফাঁকির অভিযোগ পত্নীতলায় জেলা প্রশাসকের সাথে মতবিনিময় সভা মাইক্রোসফট ইনোভেটিভ এডুকেটর এক্সপার্ট বাংলাদেশ কমিউনিটি মিটআপ ২০২৩ অনুষ্ঠিত চট্টগ্রাম কলেজ প্রাক্তন ছাত্রলীগ পরিষদের যৌথ সভা অনুষ্ঠিত ৭টি উপ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করা আহ্বান বঙ্গদ্বীপ এম এ ভাসানীর নড়াইলে প্রেমের ফাঁদে ফেলে স্ত্রীকে নির্যাতন ও মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগ কুড়িগ্রাম সদরে জমি নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১৫ শেখ হাসিনার গাড়ি বহর হামলা মামলায় সাক্ষ্য দিলেন বিএনপি নেতা আমানউল্লাহ আমানসহ দুজন  চাটখিলে দিনমজুরের লাশ উদ্ধার

আমতলীতে মহিলা কলেজের প্রভাষকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা

ইমরান হোসাইন,আমতলী (বরগুনা)
  • আপডেট সময় : ০১:৫৯:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২৩ ১৫৯ বার পড়া হয়েছে
যমুনা প্রতিদিন অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বরগুনার আমতলী বকুলনেছা মহিলা ডিগ্রি কলেজের পদার্থ বিজ্ঞানের প্রভাষক সৈয়দ মোহাম্মাদ ওয়ালিউল্লাহ এর বিরুদ্ধে পাবলিক পরীক্ষা (অপরাধ) ১৯৮০ এর ৩(ক)(খ)১৩ ধারায় বডি চেইঞ্জ পরীক্ষায় সহায়তার দায়ে জিআর-১৫৪/১৮নং মোকদ্দমায় আমতলী উপজেলার বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ আরিফুর রহমান মামলার ধার্যতারিখ মঙ্গলবার গ্রেফতারী পরোয়ানার আদেশ দিয়েছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের মে মাসের ৩ তারিখ আমতলী বকুলনেছা মহিলা কলেজের এইচ,এস,সি, পরীক্ষা কেন্দ্রে উচ্চতর গনিত ২য় পত্রের পরীক্ষার দিন পরীক্ষার্থী মো. আরিফুর রহমানের প্রবেশ পত্র যাচাইকালে দেখতে পান যে প্রবেশ পত্র ও রেজিষ্টেশন কার্ডে মো. মেহেদী হাসান এর ছবি ও প্রবেশপত্র।

পরীক্ষা কেন্দ্রের দায়িত্ব প্রাপ্তদের জিজ্ঞাসাবাদে আরিফুর রহমান জানান, যে সে ২৫ হাজার টাকা চুক্তিতে মেহেদি হাসানের সাথে চুক্তিবদ্ধ হেেয়ছে তাকে জিপিএ ৪ পাইয়ে দিবে। নগদ ২০ হাজার টাকা নিয়েছে।

হল কর্তৃপক্ষ আরিফুর রহমানকে পুলিশে সোপর্দ করে। এ ঘটনায় বকুল নেছা মহিলা কলেজের তৎকালীন( ভারপ্রাপ্ত) অধ্যক্ষ মো. মজিবুর রহমান আমতলী থানায় পাবলিক পরীক্ষা (অপরাধ) ১৯৮০ এর ৩(ক)(খ)১৩ ধারায় বডি চেইঞ্জ পরীক্ষায় সহায়তার দায়ে মামলা দায়ের করেন।

এ মামলায় ১নং আসামী আরিফুর রহমান (১৯) গ্রেফতার হওয়ার পরে বিজ্ঞসিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেটএর নিকট ফৌজদারী কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দিতে বকুল নেছা মহিলা কলেজের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক সৈয়দ মো. ওয়ালি উল্লাহর সম্পৃক্ত থাকার বিষয়টি প্রকাশ করেন।

কিন্ত পরবর্তীতে পিবিআই পুলিশের পরিদর্শক(পটুযাখালী) তদন্তকারী কর্মকর্তা মো. আব্দুস সোবাহান সৈয়দ মো. ওয়ালি উল্লাহর নাম তদন্ত প্রতিবেদনে বাদ দিয়ে দেন।

মামলার ধার্য তারিখ ১৭ জানুয়ারী ২০২৩ তারিখ পিবি আই পুলিশের তদন্ত প্রতিবেদনে সন্তোষজনক না হওয়ায় সৈয়দ ওয়ালি উল্লাহকে অর্šÍভূক্ত করে মামলাটি আমলে নিয়ে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী করেন বলে জানান, আসামী পক্ষের আইনজীবি অ্যাড ইসহাক বাচ্চু।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আমতলীতে মহিলা কলেজের প্রভাষকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা

আপডেট সময় : ০১:৫৯:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২৩

বরগুনার আমতলী বকুলনেছা মহিলা ডিগ্রি কলেজের পদার্থ বিজ্ঞানের প্রভাষক সৈয়দ মোহাম্মাদ ওয়ালিউল্লাহ এর বিরুদ্ধে পাবলিক পরীক্ষা (অপরাধ) ১৯৮০ এর ৩(ক)(খ)১৩ ধারায় বডি চেইঞ্জ পরীক্ষায় সহায়তার দায়ে জিআর-১৫৪/১৮নং মোকদ্দমায় আমতলী উপজেলার বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ আরিফুর রহমান মামলার ধার্যতারিখ মঙ্গলবার গ্রেফতারী পরোয়ানার আদেশ দিয়েছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের মে মাসের ৩ তারিখ আমতলী বকুলনেছা মহিলা কলেজের এইচ,এস,সি, পরীক্ষা কেন্দ্রে উচ্চতর গনিত ২য় পত্রের পরীক্ষার দিন পরীক্ষার্থী মো. আরিফুর রহমানের প্রবেশ পত্র যাচাইকালে দেখতে পান যে প্রবেশ পত্র ও রেজিষ্টেশন কার্ডে মো. মেহেদী হাসান এর ছবি ও প্রবেশপত্র।

পরীক্ষা কেন্দ্রের দায়িত্ব প্রাপ্তদের জিজ্ঞাসাবাদে আরিফুর রহমান জানান, যে সে ২৫ হাজার টাকা চুক্তিতে মেহেদি হাসানের সাথে চুক্তিবদ্ধ হেেয়ছে তাকে জিপিএ ৪ পাইয়ে দিবে। নগদ ২০ হাজার টাকা নিয়েছে।

হল কর্তৃপক্ষ আরিফুর রহমানকে পুলিশে সোপর্দ করে। এ ঘটনায় বকুল নেছা মহিলা কলেজের তৎকালীন( ভারপ্রাপ্ত) অধ্যক্ষ মো. মজিবুর রহমান আমতলী থানায় পাবলিক পরীক্ষা (অপরাধ) ১৯৮০ এর ৩(ক)(খ)১৩ ধারায় বডি চেইঞ্জ পরীক্ষায় সহায়তার দায়ে মামলা দায়ের করেন।

এ মামলায় ১নং আসামী আরিফুর রহমান (১৯) গ্রেফতার হওয়ার পরে বিজ্ঞসিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেটএর নিকট ফৌজদারী কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দিতে বকুল নেছা মহিলা কলেজের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক সৈয়দ মো. ওয়ালি উল্লাহর সম্পৃক্ত থাকার বিষয়টি প্রকাশ করেন।

কিন্ত পরবর্তীতে পিবিআই পুলিশের পরিদর্শক(পটুযাখালী) তদন্তকারী কর্মকর্তা মো. আব্দুস সোবাহান সৈয়দ মো. ওয়ালি উল্লাহর নাম তদন্ত প্রতিবেদনে বাদ দিয়ে দেন।

মামলার ধার্য তারিখ ১৭ জানুয়ারী ২০২৩ তারিখ পিবি আই পুলিশের তদন্ত প্রতিবেদনে সন্তোষজনক না হওয়ায় সৈয়দ ওয়ালি উল্লাহকে অর্šÍভূক্ত করে মামলাটি আমলে নিয়ে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী করেন বলে জানান, আসামী পক্ষের আইনজীবি অ্যাড ইসহাক বাচ্চু।