সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৯:৫৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সকল প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে খুলনায় বায়োজিন এলো আন্তর্জাতিক মানের স্কিনকেয়ার সেবা নিয়ে বিএমডিএ : মিথ্যা তথ্যে পিডি নিয়োগ,৮ কোটি টাকার কাজ ভাগ-বাটোয়ারার আয়োজন মোহনপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দুই এমপির চেয়ারম্যান প্রার্থীর লড়াই মোহনপুরে উপজেলা নির্বাচন বর্জনের ডাকে বিএনপির লিফলেট বিতরণ নালিতাবাড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান হাজী মোশারফ শেখ ফরিদ-আশুরা ভাইস চেয়ারম্যান এমপি আবুল কালাম আজাদের চাচাতো ভাইয়ের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ দুর্গাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হলেন শরীফ সারিয়াকান্দিতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা, থানায় অভিযোগ রাজশাহীর তিন উপজেলায় চেয়ারম্যান হলেন যারা রাজশাহী বরেন্দ্র কলেজের নতুন অধ্যক্ষ রণজিৎ কুমার সাহা
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

সুজানগরে নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবিতে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশের বাঁধা

পাবনার সুজানগরে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিশেষ সহকারি এডভোকেট শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস ও পাবনা-২ আসনের সাবেক এমপি একেএম সেলিম রেজা হাবিবসহ নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবিতে বের হওয়া বিক্ষোভ মিছিল কর্মসূচিতে পুলিশি বাধার ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) দুপুরে সুজানগর থানার সামনে এঘটনা ঘটে। এর আগে এদিন উপজেলার মানিকদীর ইদগাহ মাঠ থেকে উপজেলা ও পৌর বিএনপির এবং সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিলটি শুরু হয়।মিছিলটি কিছুদূর অতিক্রম করে থানার সামনে গেলে নেতাকর্মীরা পুলিশী বাধার মুখে পড়ে।এ সময় নেতাকর্মীদের মাঝে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পুলিশি বাধা অতিক্রম করে মিছিলটি নিয়ে নেতাকর্মীরা বাজারের দিকে যেতে চাইলে পুলিশ ব্যারিকেড দেয়। এতে বেশ কিছুক্ষণ নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধস্তাধস্তি চলে। একপর্যায়ে মিছিলে থাকা সিনিয়য় নেতাদের মধ্যস্ততায় পরিস্থিতি শান্ত হয়। পরে সেখানেই সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেন তাঁরা।

সুজানগর উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি আজম বিশ্বাসের সভাপতিত্বে ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাজারী জাকির হোসেনের পরিচালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি সাবেক এমপি সিরাজুল ইসলাম সরদার, জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-আহবায়ক আব্দুস সামাদ খান মন্টু, সাবেক সিনিয়র যুগ্ম-আহবায়ক আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ মান্নান মাস্টার, পাবনা সাবেক সহ- সভাপতি ও পাবনা সদর উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি একেএম মুসা,সাধারণ সম্পাদক রেহানুল ইসলাম বুলাল,জেলা বিএনপি সাবেক যুগ্ন-সম্পাদক আব্দুল হালিম সাজ্জাদ, বিএনপি নেতা একেএম ফিরোজ রেজা হাবিব, আহমেদ আলী লাটু প্রামানিক, আব্দুস সালাম মোল্লা, উপজেলা যুবদলের আহবায়ক সিদ্দিকুর রহমান পিন্টু, সদস্য সচিব রিয়াজ মন্ডল, উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোশারফ হোসেন বাদশা ও সাবেক সিনিয়র যুগ্ন আহবায়ক রাশেদুল ইসলাম বাবু মন্ডল।

এছাড়াও সমাবেশে পাবনা পৌর বিএনপি সাবেক সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম লালু, জেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি মুসাব্বির হোসেন সঞ্জু, ফরিদপুর উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারন সম্পাদক এ্যাডভোকেট আবুল হোসেন, বেড়া উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারন সম্পাদক রইচ উদ্দিন,পাবনা জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ন-সম্পাদক আবু বকর সিদ্দিক মকু, জেলা যুবদলের আহবায়ক হিমেল রানা, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব কমল শেখ টিটু, জেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, সুজানগর উপজেলা বিএনপির সভানেত্রী লুৎফুর নাহার হাজারী, সুজানগর উপজেলা যুবদলের সাবেক আহবায়ক সিদ্দিক বিশ্বাসসহ স্থানীয় বিএনপি সহ বিভিন্ন ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড বিএনপির সিনিয়র নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, আমাদের পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী আমরা বিক্ষোভ মিছিল বের করেছি। কিন্তু বর্তমান স্বৈরাচারী সরকারের আজ্ঞাবহ পুলিশ আমাদের মিছিলে বাধা দিয়েছে। সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ মিছিলে বাধা দিয়ে পুলিশ আমাদের আন্দোলনকে বাধাগ্রস্থ করতে চায়। কিন্তু আমাদের এই সংগ্রাম বন্ধ করা যাবেনা।বিএনপি মাঠে আছে মাঠেই থাকবে। নেতাকর্মীরা আরও উজ্জীবিত হয়ে আন্দোলন চালিয়ে যাবে।

সুজানগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুল হাননান বলেন, প্রশাসনকে লিখিতভাবে না জানিয়েই মিছিল বের করে বিএনপির নেতাকর্মীরা। পৌর বাজারের দিকে মিছিলটি গেলে মূল সড়কে মানুষের ভোগান্তির সৃষ্টি হবে। মানুষের ভোগান্তি যাতে না হয় এবং আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির বিঘ্ন না ঘটে বিধায় পৌর বাজারের দিকে মিছিলটি প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seven − three =


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ

x