বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৩৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালন বিজনেস নির্দেশনা কলামঃ Business Strategy পরিবর্তন করুন রক্ত দিয়ে কিনেছি নাটোর জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের মৃত্যুতে প্রদ্যুৎ কুমারের শোক জকিগঞ্জে পরিত্যক্ত দোকান থেকে খাদ্য অধিদপ্তরের চাল উদ্ধার ‘মুজিবনগর দিবস’ বাঙালির পরাধীনতার শৃঙ্খলমুক্তির ইতিহাসে অবিস্মরণীয় দিন : প্রধানমন্ত্রী রাসিকের কর্মকর্তা/কর্মচারীগণের ক্ষেত্রে সর্বজনীন পেনশন চালুকরণের নিমিত্তে মতবিনিময় সভা নড়াইল ডিবি পুলিশের অভিযানে গাঁজাসহ একজন গ্রেফতার গাইবান্ধায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের স্নান উৎসব উপজেলা নির্বাচন ঘিরে ব্যাপক জনসমর্থন নিয়ে এগিয়ে নুরুল হুদা
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

এবার গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর সুপারিশ

পাইকারি পর্যায়ে বিদ্যুৎতের দাম ১৯ দশমিক ৯২ শতাংশ বাড়ানোর পর এবার গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুৎতের দাম ১৫ থেকে সাড়ে ২৭ শতাংশ পর্যন্ত বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) গঠিত কারিগরি মূল্যায়ন কমিটি।তাদের দাবি,প্রস্তাবনা অনুযায়ী দাম বৃদ্ধি না করলে লোকসানে পড়বে বিতরণকারী প্রতিষ্ঠানগুলো।

এ প্রস্তাবের পক্ষে যুক্তি তুলে ধরে রোববার সকালে রাজধানীর বিয়াম মিলনায়তনে রেগুলেটরি কমিশনের গণশুনানিতে দাম বাড়ানোর পক্ষে গণশুনানি চলছে।

শুনানিতে অংশ নেয় পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ- পিজিসিবি সঞ্চালন খরচ প্রতি ইউনিটে ১২২%, বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড ১৫.০৮, বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুৎতায়ন বোর্ড ২০.৩%, ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি – ডিপিডিসি ২৭.৪৮%, ঢাকা ইলেকট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি – ডেসকো ১৯.০৮%, ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি ১৯.৩৮% ও নেসকো গ্রাহক পর্যায়ে ২২.০৬% বিদ্যুৎতের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব করে।

যদিও ভোক্তা অধিকার সংগঠন কনজুমার এসোসিয়েশনের অব বাংলাদেশ- ক্যাব বলছে, ভর্তুকি কমাতে দাম বাড়ানো অযৌক্তিক।এতে জীবনযাত্রার ব্যয় আরও বাড়বে।

সংগঠনটির সভাপতি ড. শামসুল আলম জানান,আমাদের শঙ্কা বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হলে তা মূল্যস্ফীতিকে আরও উস্কে দেবে।

তবে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের চেয়ারম্যান আবদুল জলিল বলছেন,বিতরণকারী সংস্থার প্রস্তাবের যৌক্তিকতা যাচাই বাছাইয়ের পাশাপাশি অংশীজনদের মতামতের ভিত্তিতে দাম বৃদ্ধির বিষয়টি চূড়ান্ত করা হবে।

এদিকে হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ ও মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ আলাদা ট্যারিফ ও পাইকারি মূল্যে বিদ্যুতের আবেদন জানিয়েছে বলেও জানানো হয় শুনানিতে।

গত ২১ নভেম্বর পাইকারি পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম ১৯ দশমিক নয় দুই শতাংশ বেড়েছে।সবশেষ ভোক্তা পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বাড়ে ২০২০ সালে।গত ৩ বছরের বিভিন্ন খাতে ব্যয় বৃদ্ধি ও পাইকারী দামের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে ভোক্তা পর্যায়ে দাম বাড়ানোর দাবি বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen − 3 =


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ

x