মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০৮:২৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রাজশাহীর ১৪০০ খতিব,ইমাম,মুয়াজ্জিন ও হাফেজদের ঈদ শুভেচ্ছা ভাতা দিলেন রাসিক মেয়র সকলকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন মাসুম বিল্লাল ফারদি নতুন নাটকে অভিনেত্রী নূপুর রাজশাহীতে সাংবাদিককে সামাজিক মাধ্যমে লাগাতার হুমকি রাজশাহীর বাঘায় আম বোঝায় ট্রাক নিয়ন্ত্রন হারিয়ে দোকানে ধাক্কা : আহত ২ সারিয়াকান্দি পৌরসভায় ঈদ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ঈদ উপহার পেলেন ১৫শ’৪০টি পরিবার নবনির্বাচিত ভাইস-চেয়ারম্যান পপি’র বিরুদ্ধে অপপ্রচার বির্তকিত সাংবাদিক রফিকের রোষানলে সাংবাদিক কাজী শাহেদ,মিথ্যাচারের প্রতিবাদ রাজশাহী বিভাগের ১৯ উপজেলার চেয়ারম্যান-ভাইস চেয়ারম্যানের শপথ গ্রহণ দ্রুত সময়ে কোরবানির বর্জ্য অপসারণ বিষয়ে রাসিকের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত
নোটিশ :
দেশের জনপ্রিয় সর্বাধুনিক নিয়ম-নীতি অনুসরণকৃত রাজশাহী কর্তৃক প্রকাশিত নতুনধারার অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘যমুনা প্রতিদিন ডট কম’

মাহে রমজানের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জয়পুুরহাট জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ নূরে আলম

একটি বছর পর আবারও এসে গেল পবিত্র মাহে রমজান ২০২৩।হিজরী ক্যালেন্ডার অনুযায়ী সবচাইতে উত্তম মাস হচ্ছে রমজান মাস।কারণ এই মাসে সকল মুসলমান মহান আল্লাহ তায়ালার সন্তুষ্টির লক্ষ্যে সিয়াম সাধনা করে থাকেন।

বাংলাদেশ চাঁদ দেখা কমিটি ঘোষণা করেছে ২০২৩ সালের প্রথম রোজা আজ শুক্রবার থেকে শুরু।তাই মাহে রমজানকে সামনে রেখে জয়পুুরহাট জেলাবাসীসহ সকল মুসলমান ভাই বোন কে জানাই পবিত্র মাহে রমজানের শুভেচ্ছা।

আরবি শাবান মাসের পরের মাস রমজান। “আলহামদুলিল্লাহ্‌, আসান্ন রমজান মাস মুসলিম উম্মাহর জন্য রহমত, মাগফেরাত ও নাজাতের মাস।মহান আল্লাহর কাছ থেকে করুনা ভিক্ষার মাস।আল্লাহর কাছে ক্ষমা ও নেয়ামত কামনা করার মাস, অতীতের সমস্ত গুনাহ মাফ চাওয়ার মাস।আত্মশুদ্ধির মাস।মহান আল্লাহর কাছে প্রার্থনা কবুল করার উপযুক্ত সময় হলো পবিত্র মাহে রমজান।এ মাসে আল্লাহ কবর আযাব মাফ করে দেন।কবরবাসীদের অনেক জনকে নাযাত দান করেন।

রোজাদারদের জন্য জান্নাতের একটা দরজা রয়েছে।যার নাম রাইয়ান।শুধুমাত্র যারা মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য রোজা রাখেন এবং এবাদতের মাধ্যমে আল্লাহকে সন্তুষ্ট করতে সক্ষম হবেন কেবলমাত্র ঐ সকল মুমিন বান্দাদের মহান আল্লাহ এই দরজা দিয়ে জান্নাতে প্রবেশের অনুমতি দিবেন।

কাজেই মুসলমানদের জন্য রমজান মাস অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং নেয়ামতের মাস।এই মাসে রয়েছে শবে কদরের মত গুরুত্বপূর্ণ রজনী।২০ রমজানের পরে প্রত্যেক বেজোড় রাতে এই রজনীকে তালাশের জন্য মহানবীর পক্ষ হতে নির্দেশনা রয়েছে।কারন ভাল আমলের মাধ্যমে পাল্লাকে ভারী করার অত্যন্ত সহজ একটি ব্যবস্থা রয়েছে মহানবীর উম্মতের জন্য এই রজনীতে।এই রাতের এবাদতকে হাজার বছরের ইবাদতের ফজিলতের সাথে তুলনা করা হয়েছে।

কাজেই আমরা আসন্ন রমজান মাসের গুরুত্বপূর্ণ সময় গুলোর সঠিক ব্যবহার করে নিজেদের প্রকৃত মুসলমান ও মহান আল্লাহর প্রিয় মুমিন বান্দা হওয়ার জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করব।

পবিত্র রমজানের উছিলায় প্রত্যেক মরহুম মুসলমান নর-নারীকে তাদের জিন্দেগীর জানা অজানা গুনা ক্ষমা করে মহান আল্লাহ যেন রমজানের উছিলায় নাজাত দান করেন আল্লাহর দরবারে এই প্রার্থনা করছি।সাথে সাথে আরো প্রার্থনা করি যেন আল্লাহ আমাদের সকল মুসলমান ভাই বোনদের পবিত্র এই রমজানের সবগুলো রোজা পালনের সক্ষমতা দান করেন এবং আমাদের জিন্দেগীর জানা অজানা সব গুনাহ মাফ করে দেন।আমাদের প্রত্যেক মুসলমানকে হারাম হালাল বুঝে চলার তৌফিক দানের মাধ্যমে মহান আল্লাহতালা তার দরবারে মুমিন বান্দা হিসেবে কবুল করেন।আরো দোয়া রইল “আল্লাহ” আপনাদের জীবনে সুখ, শান্তি সহ ইসলামী শরিয়াহ মোতাবেক আপনার ইচ্ছা এবং স্বপ্ন পূরণ করুন আমিন।সবাইকে পবিত্র রমজানুল মোবারক এর শুভেচ্ছা।

শুভেচ্ছান্তে:- মোহাম্মদ নূরে আলম
পুলিশ সুপার
জয়পুুরহাট জেলা পুলিশ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seventeen − 15 =


অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ

x